শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৪ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ নভেম্বর, ২০২০ ২২:৪৩

মাগুরায় সুদের ফাঁদে আট কৃষক পরিবার

মাগুরা প্রতিনিধি

মাগুরার শ্রীপুরে সুদ ব্যবসায়ীর দেওয়া মামলায় দিশাহারা আট কৃষক পরিবার। সর্বোচ্চ ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা ধার নিয়ে সুদ-আসলে প্রত্যেকে অন্তত তিনগুণ টাকা দিয়েছেন সুদ কারবারি রিপন মিয়াকে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, সুদের টাকা সন্তোষজনক না হওয়ায় ফাঁকা ব্যাংক চেকের বিপরীতে তাদের বিরুদ্ধে প্রায় ২ কোটি টাকার চেক ডিজঅনার মামলা দিয়েছে রিপন। কাদিরপাড়ার কৃষক সবুর মোল্যা জানান, গত বছরের শুরুতেই অসুস্থতাজনিত কারণে তিনি রিপনের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিলেন। সুদ-আসল মিলিয়ে তিনি চার মাসে রিপনকে ৫৭ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। রিপন তার কাছে আরও ৩০ হাজার টাকা দাবি করেন। এতে রাজি না হওয়ায় ২০ হাজার টাকা ধার নেওয়ার সময় দেওয়া কৃষি ব্যাংকের একটি ফাঁকা চেকে ২৫ লাখ টাকা বসিয়ে চেক ডিজ-অনার মামলা করেন রিপন। একই ধরনের অভিযোগ করেছেন কাদিরপাড়ার গোবিন্দ সেন, রবীন্দ্র সেন, পশ্চিম রাজাপুরের শরিফুল ইসলাম, মালাইনগরের মুক্তার হোসেনসহ অন্তত ৮ জন কৃষক। যাদের বিরুদ্ধে রিপনের দাবিকৃত ধার দেওয়ার টাকার পরিমাণ কমপক্ষে দুই কোটি। তারা মামলা থেকে পরিত্রাণ পেতে জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন দফতরে ধরনা দিচ্ছেন। অভিযুক্ত রিপন মিয়া বলেন, মামলায় বর্ণিত অভিযোগ সত্য। তারা ব্যবসায়িক প্রয়োজনে সবাই টাকা ধার নিয়েছেন। যা পরিশোধ করতে না পারায় তিনি আদালতে মামলা দিয়েছেন। মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম বলেন, প্রমাণসহ ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর