Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ মে, ২০১৯ ১১:৩৬

ঝিনাইদহে অজানা রোগে আক্রান্ত শিশু কঙ্কালে পরিণত হচ্ছে

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

ঝিনাইদহে অজানা রোগে আক্রান্ত শিশু কঙ্কালে পরিণত হচ্ছে

অজানা রোগে আক্রান্ত হয়ে ৪ বছর বয়সী শিশু আবিরের শরীরটা দিনদিন কঙ্কালে পরিণত হচ্ছে। এ অবস্থায় শিশুটির বাবা-মা ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে কাশিপুর গ্রামের নানা বাড়িতে সন্তানকে ফেলে পালিয়েছে। অথচ শিশুটিকে বাঁচাতে তার নানা-নানি মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। কিন্তু কোনো সাড়া পাচ্ছেন না। 

আবির-আপন দুই ভাই। বাবা-মায়ের কাছে আদরে আছে ছোট ভাই আপন। কিন্তু আবিরের কপালে জোটেনি বাবা- মায়ের আদর স্নেহ। 

আবিরের জন্মের ৮ মাস বয়সে টিকা দেয়ার পর থেকে খিঁচুনি আর জ্বর শুরু হয়। এরপর ধীরে ধীরে শরীর শুকিয়ে যেতে শুরু করে। শরীরের সবগুলো হাড় বেরিয়ে আসা শুরু করে। শিরাগুলো টান ধরেছে ফলে
স্বাভাবিকভাবে হাত-পা নড়াচড়া করতে পারে না আবির। দেখতে অনেকটা বৃদ্ধ মানুষের মতো। দরিদ্র দিনমজুর নানা লিয়াকত আলী ও নানি মঞ্জুরা বেগম এখন আবিরের একমাত্র ভরসা।

নানি মঞ্জুরা বেগম জানায়, গত ৫বছর আগে যশোর সদর উপজেলার সাতমাইল এলাকার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আলাউদ্দীনের ছেলে দিনমজুর আল-আমিনের সঙ্গে তাদের মেয়ে রতনা খাতুনের বিয়ে হয়। এরপর এক বছরের মাথায় আবিররের জন্ম হয়। জন্মের পর সুস্থই ছিল আবির। কিন্তু জন্মের ৮মাস পর স্থানীয় টিকাদান কেন্দ্রে নিয়ে টিকা দেয়ার পর থেকে প্রচন্ড খিঁচুনি শুরু হয়। সঙ্গে অনেক জ্বর। এরপর বিভিন্ন ডাক্তারের কাছে নেয়া হয়েছে কিন্তু কোনো উন্নতি হয়নি। পরে খিঁচুনি কমলেও শরীর শুকিয়ে যেতে থাকে তার। অসুস্থ হওয়ার পর মেয়ে-জামাই আবিরকে আমাদের কাছে রেখে চলে যায়। এরপর থেকেই আমাদের কাছে রয়েছে। পরে মেয়ের ঘরে আবার একটা সন্তান আসে। অথচ বড় ছেলের কোনো খোঁজখবর রাখে না তারা।
প্রতিবেশীরা জানান, শিশুটির চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। যা দিনমজুর নানা পক্ষে কোনোভাবেই সংগ্রহ হবে না।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য