Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ মে, ২০১৯ ১৭:০৮

ঠাকুরগাঁওয়ে অনিয়মের অভিযোগে গম কেনা বন্ধ

আব্দুল লতিফ লিটু, ঠাকুরগাঁও:

ঠাকুরগাঁওয়ে অনিয়মের অভিযোগে গম কেনা বন্ধ

এবার সরকারি গুদামে সরাসরি গম দেবে কৃষক। চাষিদের ন্যায্য দর নিশ্চিত করতে সিদ্ধান্ত হয় লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন হবে। লটারির মাধ্যমে কৃষকের কৃষি কার্ডের নম্বর তুলে নির্বাচিত করা হয়। তবে কৃষি কার্ডের নম্বরের পাশে কৃষকের নাম না রাখায় সিন্ডিকেট চক্র সক্রিয় হয়ে ওঠে। 

পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে 'ভেল্কি' দিয়ে সিন্ডিকেট চক্রের পছন্দের কৃষকের নাম লিখে পুরনায় তালিকা তৈরি করে কৃষি বিভাগ ও খাদ্য বিভাগ। এ ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর সচেতন কৃষকের দাবির মুখে গম কেনা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন ক্রয় কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডব্লিউ এম রায়হান শাহ । 

এদিকে পূর্বের লটারির তালিকা বাতিল করে নতুন করে আবারো তালিকা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এসএম গোলাম সারওয়ার বলেন, লটারির তালিকায় কোন রদ বদল করা হয়নি বা তিনি কোন সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত নন। তারা শুধু কৃষকের তালিকা সরবরাহ করেছেন মাত্র। দপ্তরের নথি পত্র থেকে তালিকা করা হয়েছে। বাড়তি কারো নাম দেওয়া হয়নি।

এ দিকে পীরগঞ্জ উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আব্দুল মোমিন সরকার জানান, অনেক চাপাচাপির পর কৃষকের ওই তালিকা থেকে বিতর্কিত প্রভাবশালী পরিবারটি নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। এ নিয়ে আমাদের গায়ে তাপ লাগছে। আমরা বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করছি।

এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডব্লিউ এম রায়হান শাহ বলেন, তালিকা প্রস্তুতে অনিয়মে আগের লটারির তালিকা বাতিল করা হয়েছে। নতুন করে লটারির মাধ্যমে তালিকা করার সিদ্ধান্ত হয়। অনিয়মের বিষয়ে যারা যুক্ত, তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।  

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরো বলেন, আমরা স্বচ্ছতার সাথে লটারি করার চেষ্টা করেছি। কিছু বিষয়ে সমস্যা রয়েছে। যেটা তার নলেজের বাইরে ছিল। যাই হোক প্রকৃত কৃষকের কাছ থেকেই গম কেনার নিশ্চয়তা দেন তিনি।

এবার গম সংগ্রহ অভিযানে পীরগঞ্জ উপজেলা থেকে ১৬১৮ মে. টন গম সংগ্রহ করবে উপজেলা খাদ্য বিভাগ।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য