প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০৬:০১

ধর্ষণের শিকার চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি

ধর্ষণের শিকার চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা
প্রতীকী ছবি

ভোলার চরফ্যাশনে ৪র্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের ফলে এখন সে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। ধর্ষকের নাম মোঃ আওলাদ হোসেন। সে আব্দুল মালেকের ছেলে। তার বাড়ী এওয়াজপুর ইউনিয়নে ৮ নংওয়ার্ডে। ধর্ষক আওলাদ রাজমিস্ত্রীর হেলপার হিসেবে কাজ করে।

এ ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রীর বাবা গতকাল মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে বাদী হয়ে আওলাদকে আসামি করে চরফ্যাশন থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করছেন। থানায় মামলার খবরে ধর্ষক আওলাদ বর্তমানে পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরনে জানা গেছে, নির্মাণ শ্রমিক আওলাদ ওই ছাত্রীর স্কুল সংলগ্ন বিল্ডিংয়ে কাজ করতো। এই সুবাধে ছাত্রীর সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তুলে। কাজ শেষে  শ্রমিকেরা সবাই চলে গেলে ছাত্রীটিকে কৌশলে ডেকে  বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে নির্ণানধীন ভবনের একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে।এরপর ছাত্রীটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। তার শাররিক পরিবর্তনের ফলে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে বিষয়টি ধরা পড়ে।বাবা মায়ের চাপে এ ব্যাপারে সে সবকিছু স্বীকার করে। 

চরফ্যাশন থানার ওসি বলেন, থানায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ন্যায় বিচার চেয়ে ধর্ষিতার বাবার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে।

 

বিডি-প্রতিদিন/ সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য