শিরোনাম
প্রকাশ : ১ এপ্রিল, ২০২০ ২১:৫৮

মেলেনি করোনাভাইরাসের লক্ষণ

বিরামপুরে মুক্ত হলেন আইসোলেশনে থাকা শিশুসহ ২ জন

দিনাজপুর প্রতিনিধি

বিরামপুরে মুক্ত হলেন আইসোলেশনে থাকা শিশুসহ ২ জন

করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৮ বছরের এক শিশু ও ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্টকে আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়েছিল। ভর্তির পর দুই রোগীর নমুনা সংগ্রহ করে রোগতত্ত্ব রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিআর বিভাগে পাঠানো হয়েছিল। নমুনা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে আইইডিআর জানিয়েছে তাদের শরীরে কোনো করোনাভাইরাস নেই। 

বুধবার বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

মঙ্গলবার বিকেলে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিআর বিভাগের পাঠানো রিপোর্ট বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আসে। বুধবার দুপুরে তাদের আইসোলেশন থেকে মুক্ত করা হয়েছে।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদী বলেন, ২৪ মার্চ দুপুরে ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হঠাৎ গলা ব্যাথা, জ্বর, সর্দি, শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়। এর আগে ২৩ মার্চ শিশুটিও একই রকম অসুস্থতা নিয়ে আইসোলেশনে ভর্তি হয়। এছাড়াও এ উপজেলায় ১২৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, ৩০ মার্চ সোমবার করোনারভাইরাসের লক্ষণ (জ্বর, সর্দি, শ্বাসকষ্ট) নিয়ে বিরামপুরে উপজেলার জোতবানি ইউনিয়নের এক যুবক মারা যায়। পরে সেই যুবকের নমুনা সংগ্রহ করে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিআর পাঠানো হয়েছে। ওই যুবকের শরীরের নমুনা পরীক্ষা ফলাফল এখনো পাওয়া যায়নি বলে জানান।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য