শিরোনাম
প্রকাশ : ২ মার্চ, ২০২১ ২০:১১
প্রিন্ট করুন printer

কুমিল্লায় ইউপি সচিবের তিনতলা ভবন উচ্ছেদ

কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লায় ইউপি সচিবের তিনতলা ভবন উচ্ছেদ

কুমিল্লায় শত বছরের সরকারি রাস্তা দখল করে তিনতলা ভবন নির্মাণ করেন ইউপি সচিব। এ নিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠক হয়। কিন্ত কোনো সুরাহা হয়নি।

অবশেষে মঙ্গলবার কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার উত্তর দুর্গাপুর ইউনিয়নের গুণানন্দি গ্রামে সরকারি রাস্তা উদ্ধারের জন্য তিনতলা ভবনটি গুঁড়িয়ে দিয়েছে প্রশাসন। কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্রেট জনি রায় এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা গেছে, সরকারি রাস্তা দখল করে তিনতলা বাড়ি নির্মাণ করেন ওই গ্রামের বাসিন্দা মো. ইসমাইল হোসেন। তিনি জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়ন পরিষদের সচিব। রাস্তা দখল করে ভবন নির্মাণের ফলে ৩৫টি পরিবারের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। তবে প্রভাব খাটিয়ে ওই ইউপি সচিব সরকারি রাস্তার উপর ভবন নির্মাণ করেন। বিভিন্ন পর্যায়ে ১৫-১৬ বার সালিশ বৈঠক করেও কোনো ফল হয়নি। পরে বিষয়টি মামলায় গড়ালে আদালত সরকারি রাস্তা উদ্ধারের নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. জসিম উদ্দিন বলেন, মো. ইসমাইল হোসেনের ইউপি সচিবের চাকরি ছাড়া কোনো আয়ের রাস্তা নেই। এমন কি মাঠে এক ইঞ্চি জমিও নেই। অথচ মাত্র ৫-৬ বছরের চাকরি জীবনে তিনি এ ভবনের মালিকসহ এত অর্থ তিনি কোথায় পেলেন? শহরেও তার ফ্ল্যাট রয়েছে।

ইউপি সচিব মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, আমার পৈত্রিকসূত্রে প্রাপ্ত জায়গায় বাড়ি করেছি। আজ সরকারি নির্দেশে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। আমি একজন ইউপি সচিব, মিডিয়ায় বক্তব্য দিতে পরি না।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনি রায় জানান, বাড়িটি সরকারি রাস্তা দখল করে নির্মাণ করা হয়েছে। একাধিক নোটিশ প্রদান করা হলেও বাড়ির মালিক কর্ণপাত করেননি। তাই আজ প্রশাসনের উদ্যোগে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর