শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ এপ্রিল, ২০২১ ১৯:১৩
প্রিন্ট করুন printer

হবিগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহত, বাড়িঘর ভাঙচুর

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

হবিগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহত, বাড়িঘর ভাঙচুর
Google News

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার টঙ্গিঘাট গ্রামে জমিতে হাঁসের ধাওয়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বৃদ্ধা মহিলাসহ অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়েছে। সংঘর্ষচলাকালে প্রতিপক্ষের ৬টি বাড়ি, নদগ অর্থ লুটপাট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

আহতদের পারিবারিক ও পুলিশ সূত্র জানায়, টঙ্গিঘাট গ্রামের নুর মোহাম্মদ এর বাড়ির পালিত কয়েকটি হাঁস একই গ্রামের সিরাজ মিয়া গংদের ধান খেয়ে ফেলে। এতে সিরাজ মিয়া ও তার সন্তানেরা উত্তেজিত হয়ে হাঁসগুলোকে আঘাত করে। এতে তার ৩টি হাঁস মারা যায়। এ খবর পেয়ে নুর মোহাম্মদ সিরাজ মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সিরাজ মিয়া উত্তেজিত হয়ে তাকে অশ্লীল ভাষা কথা বার্তা বলে। এক পর্যায়ে সিরাজ মিয়াসহ তার লোকজন নুর মোহাম্মদের উপর হামলা চালায়। পরবর্তীতে এ খবর নুর মোহাম্মদ গংদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষচলাকালে সিরাজ মিয়া গংরা নুর মোহাম্মদের পক্ষের বাড়ি ঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট শুরু করে। প্রায় ৩ ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়। তবে সংঘর্ষ চলাকালে নুর মোহাম্মদ গংদের বাড়িঘর ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

এ ব্যাপারে নুর মোহাম্মদ জানান, সিরাজ মিয়ার পক্ষের লোকজন বেশি হওয়ায় তারা আমাদের চারদিকে ঘেরাও করে ফেলে। এক পর্যায়ে তারা আমাদের বাড়িঘরে ভাংচুর ও লুটপাট শুরু করে। তারা আমার পক্ষের এংরাজ মিয়া এবং তার ভাই ভিংরাজ মিয়া ওরফে রবি মিয়ার ঘর ভাংচুর করে এবং তাদের ঘরের ভিতরে থাকা ব্যবহারের ফ্রিজ, সুকেচ, টিভি, মিরসিভ ভাংচুর করে ও নগদ প্রায় দেড় লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। মোস্তফা মিয়া ও তার ৪ ভাইয়ের ভাড়িঘর ভাংচুর করে এবং তাদের ঘর থেকে নগদ ২ লাখ টাকা, স্বর্ণলংকারসহ ধান, চালসহ মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। সংঘর্ষে আমার পক্ষের বিল্লাল মিয়া, জাহাঙ্গীর, শের আলী, গহর আলী, কাবির মিয়া, মালাকা বেগম, বৃদ্ধা লক্ষি বেগমসহ ২০ জন আহন হন। আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুক আলী জানান, জমিতে হাঁসের ধান খাওয়াকে কেন্দ্র দু’পক্ষের লোকজনদের মাঝে সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 

এই বিভাগের আরও খবর