২৫ অক্টোবর, ২০২২ ১৭:১২

মাদারীপুরে ঘূর্ণিঝড়ে ৫শ হেক্টর আমন ধান তলিয়ে গেছে, ক্ষতির মুখে কৃষকেরা

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরে ঘূর্ণিঝড়ে ৫শ হেক্টর আমন ধান তলিয়ে গেছে, ক্ষতির মুখে কৃষকেরা

মাদারীপুরে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে ৫শ হেক্টর জমির আমন ধান তলিয়ে গেছে। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছে কৃষকেরা। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সরকারি ভাবে প্রণোদনা দেওয়ার দাবী কৃষকদের।

সরেজিমন ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার মস্তফাপুর, ঘটমাঝি,  কেন্দুয়া ইউনিয়ন ডাসার উপজেলার বালিগ্রাম, নবগ্রাম ইউনিয়নের আমন ধানসহ জেলার শিবচর, রাজৈর ও কালকিনির বিভিন্ন এলাকার আমন ধান ক্ষেতে গত দুইদিন ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে ভারী বৃষ্টিপাত ও ঝড়ো হাওয়ায় পানিতে তলিয়ে গেছে আমন ধান। কৃষকরা বলছেন, কিছু কিছু জমির পাকা আমন ধান ও কিছু কিছু জমির কাচা ও আধা কাচা আমন ধান নষ্ট হয়ে গেছে। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছে কৃষকরা। এসব কৃষকরা সরকারের কাছে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে প্রণোদনা দাবী করছেন।

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার বালিগ্রাম ইউনিয়নের খাতিয়াল গ্রামের কৃষক মকবুল হোসেন মল্লিক, রাসেল মল্লিক, ইউনুস মোড়লসহ অন্যান্য কৃষকরা বলেন, ঘুর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে খাতিয়াল গ্রামের সকল আমনচাষীর ধান হেলে পড়েছে অথবা তলিয়ে গেছে। এতে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে তারা। এছাড়া চার বিঘা জেিমর একটি টমোটা ক্ষেত পুরাই নষ্ট হয়ে গেছে বলেও জানান এক চাষী।

খাতিয়াল গ্রামের কৃষক মকবুল হোসেন মল্লিক বলেন, আমাদের বিশ বিঘা জমির আমন ধান তলিয়ে নষ্ট হয়েছে। আমরা অনেক ক্ষতির মুখে পড়ছি। সরকার বাহাদুর আমাদের যদি কোন অনুদান দেয়। তাহলে এই ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নেওয়া যাবে।

মাদারীপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক দ্বিগবিজয় হাজরা বলেন, ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে যে সকল কৃষকরা ক্ষতির মুখে পড়েছেন তাদের তালিকা তৈরী করা হচ্ছে। আমরা খুব শীঘ্রই তাদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা তৈরী করে আমাদের উর্ধবতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠাব। পরে সরকারি ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের কোন প্রণোদনা প্রেরণ করলে আমরা তা তালিকাভুক্ত কৃষকদের প্রদান করবো।
গত দুই দিনে ভারী বৃষ্টিপাতে মাদারীপুর জেলার প্রায় ৫শ হেক্টর আমন ধান সম্পূর্ণ ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

বিডি প্রতিদিন/এএ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর