শিরোনাম
প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:৩৭
আপডেট : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:৩৯

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে যেভাবে সফল হচ্ছে ভিয়েতনাম

অনলাইন ডেস্ক

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে যেভাবে সফল হচ্ছে ভিয়েতনাম

সম্প্রতিককালে ডেঙ্গুর প্রভাবে ফিলিপাইনে কয়েকশ মানুষ মারা যায়। তাছাড়া, ভিয়েতনামে গত বছরের তুলনায় ডেঙ্গু তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। মালয়েশিয়া, মিয়ানমার ও কম্বোডিয়ার হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বিগত বছরের তুলানায় বৃদ্ধি পেয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এবং দক্ষিণ এশিয়ায়ও ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এরইমধ্যে ডেঙ্গু মোকাবিলায় একদল বিজ্ঞানী ডেঙ্গু প্রতিরোধী ব্যাকটেরিয়া আবিষ্কার করেছেন। যেটি দিয়ে শেষ পর্যন্ত ডেঙ্গু ভাইরাসকে ধ্বংস করা যাবে। সূত্রে জানা যায়, ওয়ার্ল্ড মস্কোইট প্রোগ্রাম (ডাব্লুএমপি) একটি পদ্ধতির সূচনা করেছে। এর মাধ্যমে পুরুষ ও মহিলা এডিস এজিপ্টি মশা শরীরে 'ওলবাচিয়া' নামের একটি ব্যাকটেরিয়া ঢুকিয়ে দেওয়া হবে। এরপর কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বাচ্চা মশা জন্মগ্রহণ করে 'ওলবাচিয়া' ব্যাকটেরিয়া নিয়ে। যা ডেঙ্গু ভাইরাসের বাফার হিসাবে কাজ করবে। এটি শুধু ডেঙ্গু নয়- জিকা, চিকুনগুনিয়া এবং হলুদ জ্বর প্রতিরোধেও ভালো কাজ করবে।

পদ্ধতিটি আবিষ্কার করার পর এটি নিয়ে প্রথমে গবেষণা করা হয় উত্তর অস্ট্রেলিয়ায়। এরপরেই আরো কয়েকটি দেশে গবেষণা চালানো হয়। গবেষণা চালানোর পর প্রথম ফলাফল আসে ভিয়েতনাম থেকে। বলা হচ্ছে, ভিয়েতনামে গবেষণার ফল অনেকটাই ভালো। সেখানে বিজ্ঞানীরা প্রাথমিক সফলতা পেয়েছেন।

ভিয়েতনামের ওয়ার্ল্ড মস্কোইট প্রোগ্রামের (ডাব্লুএমপি) সমন্বয়কারী নুগেইন বিন নুগেইন বলেন, এই পদ্ধতিটি চালু করার পর অনেক ভালো ফল পেয়েছি। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে এটি বেশ কার্যকর পদ্ধতি হিসেবে প্রমাণও পেয়েছি। সূত্র: এএফপি।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য