শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০৫

শেয়ারবাজার সমস্যা

পুনর্গঠনের বিষয়ে নজর দিন

শেয়ারবাজার সমস্যা

শেয়ারবাজার নিয়ে সরকারেরও মাথাব্যথা শুরু হয়েছে। লাগাতার দরপতনে লাখ লাখ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় নীতিনির্ধারকদের মধ্যেও উদ্বেগ বাড়ছে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত গড়িয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেয়ারবাজার-সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে বৈঠকও করেছেন। এ বাজারের স্থিতিশীলতার জন্য বৈঠকে ছয়টি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সিদ্ধান্তগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরিয়ে আনার তাগিদও দেওয়া হয়েছে বৈঠকে। শেয়ারবাজারে বিধ্বংসী দরপতন চলছিল বেশ কিছু দিন ধরে। এ অবস্থা থেকে বাজারকে টেনে তুলতে প্রধানমন্ত্রী করণীয় নিয়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে বাজারের অস্থিরতা নিয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে শেয়ারবাজারে স্থিতিশীলতা ফেরাতে করণীয় জরুরি ছয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এসব সিদ্ধান্তে স্বল্পমেয়াদি কিছু পদক্ষেপ অচিরেই বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষসমূহকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শেয়ারবাজার স্থিতিশীলতায় গৃহীত পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে- শেয়ারবাজারে ব্যাংক ও ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি করা, মার্চেন্ট ব্যাংকার ও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ সুবিধার ব্যবস্থা করা, আইসিবির বিনিয়োগ সক্ষমতা বৃদ্ধি, বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট ও দেশি বাজারে আস্থা সৃষ্টি করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে উদ্যোগ গ্রহণ এবং বাজারে মানসম্পন্ন আইপিও বৃদ্ধির লক্ষ্যে বহুজাতিক ও সরকারি মালিকানাধীন লাভজনক কোম্পানিসমূহকে তালিকাভুক্তকরণের উদ্যোগ গ্রহণ। বৈঠকে পর্যায়ক্রমে দীর্ঘমেয়াদি সমস্যাসমূহ চিহ্নিত করে সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেয়ারবাজারের সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নিচ্ছেন- এ খবরে সপ্তাহের শেষ দিনে শেয়ারবাজার সূচকে বড় উত্থান হয়েছে। শেয়ারবাজারের ঘুরে দাঁড়ানোর শক্তি অর্জনে প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ ইতিবাচক ফল রাখবে বলে আশা করা যায়। এর পাশাপাশি শেয়ারবাজার কর্তৃপক্ষের ওপর বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফেরানোসহ আরও কিছু উদ্যোগও নেওয়া দরকার। বাজার নিয়ন্ত্রণকারী কমিশনের পুনর্গঠন, ব্যাংকের বিনিয়োগ নিশ্চিত করা ইত্যাদি পদক্ষেপ নেওয়া হলে শেয়ারবাজারের দুর্দিনের অবসান ঘটবে- এমনটিই আশা করা যায়।


আপনার মন্তব্য