শিরোনাম
শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

হ্যাটট্রিক সিরিজ জয়

অনন্য উচ্চতায় টাইগাররা

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০তে সিরিজ জয় করে পরপর তিনটি সিরিজ জয়ের অবিস্মরণীয় রেকর্ড করেছেন টাইগাররা। বুধবার মিরপুর স্টেডিয়ামে এক ম্যাচ হাতে রেখেই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জিতল মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বাহিনী। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষটি আজ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার চতুর্থ ম্যাচে টম লাথামের নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৬ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছেন টাইগাররা অধিনায়ক রিয়াদের দুর্দান্ত ব্যাটিং, ম্যাচসেরা নাসুমের ঘূর্ণি ও ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজের বিধ্বংসী বোলিংয়ে। টানা তিন সিরিজ জয়ে বাংলাদেশ র‌্যাংকিংয়ে পেছনে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়াকে। ২৪২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ ৬ নম্বরে। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২-১, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ও পাঁচ ম্যাচ সিরিজে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে মাহমুদুল্লাহ বাহিনী। টানা তিন সিরিজ জিতে মাহমুদুল্লাহ এখন বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল টি-২০ অধিনায়ক। ২৬ ম্যাচে তার অধিনায়কত্বে জয় ১৩টি। সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয় ছিল ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে। কিউইদের মাত্র ৬০ রানে গুটিয়ে টানা তৃতীয় সিরিজ দিয়েছিলেন টাইগাররা। দ্বিতীয় ম্যাচে ১৪১ রান করেও জয় পেতে ধকল পোহাতে হয়েছে। তৃতীয় ম্যাচে পুরোপুরি ‘ইউটার্ন’ পারফরম্যান্স কিউইদের। সফরকারীরা ৫২ রানে জিতলে জমে ওঠে সিরিজ। বুধবার বাংলাদেশ হারলে কিউইদের সঙ্গে টাইগারদের সমতা হতো। আর জিতলে ছিল সিরিজ জয়। মাহমুদুল্লাহ বাহিনী জিতে সে কাক্সিক্ষত কাজটিই করেছে। টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন সফরকারীরা। কিন্তু নাসুম ও মুস্তাফিজের আক্রমণাত্মক বোলিংয়ে ১৯.৩ ওভারে মাত্র ৯৩ রানেই তারা গুটিয়ে যান। ৪ ওভার স্পেলে ২টি মেডেন নেন নাসুম যা টি-২০ ক্রিকেটে বিরল কৃতিত্বের দাবিদার। মাত্র ১০ রান দিয়ে তিনি লাভ করেন ৪ উইকেট। মুস্তাফিজও ৪ উইকেট তুলে নেন ৩.৩ ওভারের স্পেলে ১২ রান দিয়ে। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ ৮৪ রানের টার্গেট পূরণে নিজেই করেন ৪৩ রান অপরাজিত থেকে। আজ মিরপুরে বাংলাদেশ খেলবে জয়ের ব্যবধান বাড়াতে। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড শেষ খেলাটি জয় দিয়ে শেষ করার আপ্রাণ চেষ্টা করবে। পরপর তিন সিরিজ জয়ের কৃতিত্বে টাইগারদের অভিনন্দন।

এই রকম আরও টপিক