শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২০

ইন্টারভিউ

আমি তো আমার গানের মতোই

আমি তো আমার গানের মতোই
ছবি : রাফিয়া আহমেদ
শায়ান চৌধুরী অর্ণব। অর্ণব নামেই তিনি পরিচিত। দুর্দান্ত লেখনী ও গায়কিতে শ্রোতাদের বুঁদ করে রাখাই তার স্বভাব। মাঝে কিছুদিন লোকচক্ষুর আড়ালে ছিলেন। হঠাৎ এক দিন এক গানের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তার দেখা পাওয়া যায়। জানা যায়, এবার তিনি হাজির হচ্ছেন নতুন কিছু চমক নিয়ে। সমসাময়িক বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন -পান্থ আফজাল

 

কেমন আছেন? বাপ্পা-সুস্মিতার গানের প্রকাশনা অনুষ্ঠানের বদৌলতে দীর্ঘ দুই বছর পর আপনার দেখা পাওয়া গেল...

হুম, ভালোই তো আছি! আর বাপ্পাদা আর সুস্মিতা আনিস আমার খুব কাছের মানুষ, প্রিয়জন। সেদিন তাদের ‘মেঘের চিঠি’ নামে মিউজিক ভিডিও লঞ্চিং হয়। সে উপলক্ষেই মূলত সেখানে যাওয়া।

 

গানের কথার মতোই একবার বলছেন, ‘হারিয়ে গিয়েছি, এই তো জরুরি খবর’ আবার বলছেন ‘আকাক্সক্ষা-হতাশায় হারিয়ে যাওয়ার কোনো মানে নেই!’- এত রহস্যময় কেন আপনি?

আমি তো আমার গানের মতোই! কখনো হারিয়ে যাই, অনিয়মে ডুব মারি আবার কখনো ফিরে আসি। স্বভাব তো এমনই।

 

এই হারিয়ে যাওয়ার কী কোনো মানে আছে?

গানের মতোই বলব, কোনো মানে নেই! হা হা হা... তবে কিছুটা অভিমানেই এই হারিয়ে যাওয়া। তবে এখন তা আর নেই।

 

তাহলে ভক্তরা আশার আলো দেখতে পাচ্ছে?

নিশ্চয়ই! হারিয়ে যাওয়ার সময় শেষ। এবার নতুন কাজ নিয়ে আবার ফিরে আসছি। হা হা হা...

 

ভক্তদের জন্য অর্ণবের নতুন চমক কী?

দুটি নজরুলসংগীত করেছি। দুটিই সুস্মিতা আনিসের জন্য। ‘নোনা জলের কাব্য’ নামে একটি চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করছি। আর মার্চের ১ তারিখে কেআইবিতে একটি স্টেজ শো আছে, সেটি করব। এই তো!

 

ব্যান্ডের পাশাপাশি আপনার ছয়টি একক অ্যালবাম প্রকাশ পেয়েছে। একাধারে গীতিকার, গায়ক এবং রেকর্ড প্রযোজক। এতকিছু পারেন কীভাবে?

এগুলো এমনিতেই হয়ে যায়! টেলিভিশন নাটক ও বিজ্ঞাপনে জিঙ্গেলও করেছি। চলচ্চিত্রে কাজ করেছি। 

 

শুনেছি, শান্তিনিকেতনে যাচ্ছেন, কী জন্য?

মাঝে কলকাতায় গিয়ে কিছু কাজ করেছি। আবারও শান্তিনিকেতনে যাব। শান্তিনিকেতনের নতুন কিছু শিল্পীর সঙ্গে রবীন্দ্রসংগীত নিয়ে কাজ করব। আমারও নতুন কিছু শেখা খুবই দরকার। সেখানে নিজের মতো কিছু কাজ করতে চাই। মোটকথা মানুষের জন্য ভালো কিছু কাজ করার ইচ্ছা আমার। কলকাতার মিউজিশিয়ানদের নিয়ে ভালো কিছু কাজের পরিকল্পনাও রয়েছে। কিছু মিউজিক ভিডিওর কাজও করব। সামনে অনেক চমক অপেক্ষা করছে।

 

মাঝে বলিউডের মিউজিশিয়ান প্রিতমের সঙ্গে কাজের কথা ছিল। হলো না কেন?

হয়নি, কারণ হিন্দিতে গান গাওয়ার অভ্যাস নেই। অন্যদিকে আগ্রহও তেমন পাই না। প্রিতমদা একবারই ডেকেছিলেন, যাইনি। সেবার হয়নি কিন্তু সামনে নিশ্চয়ই আরও ভালো কিছু হবে।

 

একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের কথা ছিল। তার বাস্তবায়ন কতদূর?

এটি নিয়ে কলকাতায় কাজ করছিলাম। কিন্তু গত আড়াই বছর একটু চুপচাপ ছিলাম; কিছুই আর করা হয়নি। তবে সবকিছু গুছিয়ে এনেছি। এবার বোধহয় চলচ্চিত্রটিও নিয়ে কাজ করতে পারব।


আপনার মন্তব্য