শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ মার্চ, ২০১৯ ২৩:৩৫

বিদায়, ভাওয়াইয়া গানের রাজা...

শোবিজ প্রতিবেদক

বিদায়, ভাওয়াইয়া গানের রাজা...

ভাওয়াইয়া শিল্পী ও সাংবাদিক শফিউল আলম রাজা পরপারে পাড়ি জমান গত রবিবার। সেদিন দুপুরে রাজধানীর পল্লবী এলাকার নিজের ভাড়া বাসার দরজা ভেঙে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। সে সময় তার মরদেহ বিছানায় শোয়া অবস্থায় ছিল। পুলিশের ধারণা, হার্ট অ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫০ বছর। রবিবার রাত সাড়ে ৯টায় ডিআরইউতে শফিউল আলম রাজার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর জানাজা শেষে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার নিজ গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

বেতার ও টেলিভিশনে ভাওয়াইয়াকে সমাদৃত করতে নিরলস কাজ করে যাওয়া এক জনপ্রিয় ভাওয়াইয়া শিল্পী ও সাংবাদিক শফিউল আলম রাজা। ইউটিউবে ‘ও মোর কালারে কালা’সহ তার গাওয়া বেশ কিছু গান জনপ্রিয়তা পেয়েছে। রাজা বাংলাদেশ বেতারের বিশেষ ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রথম শ্রেণির শিল্পী। লোকসংগীতের অন্যতম ধারা ভাওয়াইয়া গানের প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে তিনি ২০০৮ সালে রাজধানীতে ‘ভাওয়াইয়া’ গানের দল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এ ছাড়াও ২০১১ সালে রাজধানীতে প্রতিষ্ঠা করেন ‘ভাওয়াইয়া স্কুল’। তিনি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র ‘উত্তরের সুর’-এ চারটি মৌলিক ভাওয়াইয়া গান গেয়েছেন। শিল্পী জীবনে রাজা বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত বেঙ্গল বিকাশ প্রতিভা অন্বেষণে লোকসংগীত বিভাগে (ভাওয়াইয়া নিয়ে) ২০০৬ সালে শ্রেষ্ঠ শিল্পী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। বেঙ্গল ফাউন্ডেশন  থেকে রাজার একটি মিক্সড অ্যালবাম এবং ভায়োলিন মিডিয়া থেকে ২০১১ সালে প্রকাশিত হয়েছে একক ভাওয়াইয়া অ্যালবাম ‘কবর দেখিয়া যান’। সংগীত নিয়ে সফর করেছেন অস্ট্রেলিয়া, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ। তিনি সরকারি ও বেসরকারিভাবে বিভিন্ন রিয়েলিটি শোতে ‘বিচারক’ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি পেশায় একজন সাংবাদিক ছিলেন। দীর্ঘ ২৪ বছর সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সাংবাদিকতায় অনেক পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন এ শিল্পী।

               

 


আপনার মন্তব্য