Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ মে, ২০১৯ ২৩:৫৫

ইউটিউবে ঈদের গান...

আলী আফতাব

ইউটিউবে ঈদের গান...

ঈদ সামনে রেখে প্রায় প্রতিটি অডিও প্রযোজনা সংস্থা গানের পসরা সাজিয়েছে তাদের নিজের মতো করে। প্রায় সব অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানই গান থেকে প্রাধান্য দিচ্ছে মিউজিক ভিডিওতে। আর তাই এবারের ঈদে সলো গান থেকে মিউজিক ভিডিও প্রকাশ পাচ্ছে বেশি। আর বেশির ভাগই অবমুক্ত হবে ইউটিউবে। কোনোটি শিল্পীর ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেলে, কোনোটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে। কোনোটি লিরিক ভিডিও, আবার কোনোটি মিউজিক ভিডিও। তবে গানই মূলকথা। সাউন্ডটেক, সংগীতা, লেজার ভিশন, ধ্রুব মিউজিক স্টেশন, সিএমভি, ইমপ্রেস অডিও ভিশন, সিডি চয়েস, ঈগল মিউজিক, গানচিল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল তাদের ঈদের গানগুলো নিয়ে।

ঈদে সবচেয়ে বেশি গান প্রকাশ করছে জি-সিরিজ। অডিও-ভিডিও মিলিয়ে তাদের প্রকাশিত গানের সংখ্যা প্রায় ২০০। এই প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানা যায়, নতুন-পুরনো শিল্পীদের একটি মিলনমেলা ঘটেছে এবারের প্রকাশনায়। শুধু আধুনিক বা ফোক নয়, জি-সিরিজ থেকে প্রকাশ হবে বেশ কয়েকটি ব্যান্ডের অ্যালবাম।

কয়েক বছর ধরে নিয়মিত গান প্রকাশে শীর্ষে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন। এই ঈদে তারা প্রকাশ করছে আরিফুল ইসলাম মিঠু, কাজী শুভ, তৌফিক তামিম, ইমন খান, সাফায়াত, তানভীর তারেক, রূপা রোজারিন, খায়রুল ওয়ার্সি, শাইখ শান, তামিম, প্রেরণার মতো শিল্পীর গান। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ধ্রুব গুহ জানালেন, ‘ডিএমএস বরাবরই তরুণদের প্রাধান্য দিয়ে আসছে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। আমরা যেমন প্রবীণ শিল্পীর গান প্রকাশ করছি, তেমন একেবারেই নতুন শিল্পীরও গান থাকছে আমাদের ঈদ আয়োজনে।  আর এটা আমরা করেছি সবশ্রেণির শ্রোতার কথা চিন্তা করে। আমার বিশ্বাস, গানপিপাসুরা এবারের ঈদে ডিএমএসের এই আয়োজন থেকে পরিপূর্ণ বিনোদন পাবেন।’

এবারের ঈদে কুমার বিশ্বজিতের বিশেষ একটি গান প্রকাশ করছে গানছবি এন্টারটেইনমেন্ট। জবান আলী শাহের লেখা গানটির শিরোনাম ‘রস কইয়া বিষ খাওয়াইলো’। ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন চন্দন রায় চৌধুরী।

সিডি চয়েস থেকে প্রকাশ হচ্ছে আসিফ, হাবিব, ইমরান, পড়শী, কাজী শুভ, বেলাল খান ও তানজীব সারোয়ারের গান। দ্য ইন্ডাস্ট্রি নামে ইউটিউব প্লাটফর্মে প্রকাশিত হবে বাপ্পা মজুমদার, মিলা, প্রতীক হাসান ও রাজত্ব ব্যান্ডের গান। সিএমভি আনছে মিজান, পান্থ কানাই, তাহসান, কাঙ্গালিনী সুফিয়া, কণা, মার্সেল, মিনার, পূজা, শেখ সাদীর গান। গানচিলের প্রতিষ্ঠাতা আসিফ ইকবাল জানান, সামিনা চৌধুরী, মিনার, শফিক তুহিন, মাহতিম শাকিবের গানের ভিডিও চূড়ান্ত হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ‘ইউটিউব দর্শকের প্রত্যাশা মেটাচ্ছে, কিন্তু শিল্পী ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছে না। তারপরও আমরা গান প্রকাশ করছি একরকম দায়বদ্ধতা থেকে, আর শিল্পীরা করছেন তাদের প্যাশনের জায়গা থেকে।’

নতুন গান ‘চোখের কার্নিশে’র ভিডিও প্রকাশ করছেন শিল্পী ফাহমিদা নবী। ভিডিওটি দেখা যাবে তার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে। ঈদের জন্য সাতটি নতুন গান গেয়েছেন ন্যান্সি। এগুলোর মধ্যে পাঁচটি দ্বৈত ও দুটি একক। কয়েকদিনের মধ্যে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের ইউটিউবে গানগুলো  শোনা যাবে। তিনি বলেন, ‘সময়ের পরিবর্তনকে মানতেই হবে। আমিও ইউটিউবে গান ছেড়ে রেখে শুনি। কিন্তু ভিডিওর দিকে তাকাই না।’

ঈদের গান প্রকাশের ক্ষেত্রে বিশ্বকাপ ক্রিকেট বড় প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন কণা। তাই এবার গান প্রকাশে হিসাব করতে হয়েছে তাকে।

তবে সিদ্ধান্ত পাকা, নিজের ইউটিউব প্লাটফর্মেই গান দুটি প্রকাশ করবেন তিনি। নিজেদের নতুন গান ‘দেখা হোক, দেখা হবে’ নিয়ে হাজির হচ্ছে গানের দল চিরকুট। দলটির অন্যতম সদস্য শারমিন সুলতানা সুমী বলেন, ‘এটি আমাদের ভীষণ পছন্দের একটি গান। সুর ও সংগীত পরিচালনা থেকে সবকিছুতে অন্যরকম একটা ভালোবাসা আছে।’ এ ছাড়া বেশকিছু নাটকের গানের ভিডিও আলাদাভাবে ইউটিউবে প্রকাশ করা হবে।

 


আপনার মন্তব্য