শিরোনাম
মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা
ইন্টারভিউ

আমি অনেকটা আত্মকেন্দ্রিক

আমি অনেকটা আত্মকেন্দ্রিক

এই সময়ের টিভি ইন্ডাস্ট্রির প্রিয়মুখ মডেল-অভিনেত্রী জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি। টিভি নাটক এবং বিজ্ঞাপনে যার সমান উপস্থিতি। মাঝেমধ্যে দর্শকদের মুগ্ধ করেন মিউজিক ভিডিও এবং স্টেজ পারফরম্যান্সেও। তাঁর সঙ্গে সমসাময়িক ব্যস্ততা নিয়ে কথা বলেছেন - পান্থ আফজাল

 

ফেসবুক পেজে ২ মিলিয়ন ফলোয়ার, সেজন্য অভিনন্দন রইল। এখন কি শুটিংয়ে রয়েছেন?

ধন্যবাদ। হ্যাঁ, একটি নাটকের শুটিংয়ে রয়েছি।

 

একটি কমার্শিয়ালের কাজও করেছেন...

এটি একটি ওভিসি ছিল। আমি আর আমার রেজা মডেল হিসেবে কাজ করেছি। কিছুদিন আগে বিজ্ঞাপনটি প্রকাশও হয়েছে। এটি শাইন প্লাটিনাম বাথরুম ফিটিংসের। কনসেপ্টটি সুন্দর!

 

সিঙ্গাপুরে গিয়েছিলেন কি উদ্দেশ্যে?

সিঙ্গাপুর গিয়েছিলাম একই সঙ্গে দুই কাজ করতে। ঘুরতে আর কিছু কাজ করতে। সেখানে টানা আটটি নাটকের কাজ করেছি। আসলে একনাগাড়ে অনেক কাজ করে ফেলেছি। ছুটি পাইনি। তাই কিছু কাছের মানুষের সঙ্গে ভ্রমণ, কিছুটা সময় কাটানোই উদ্দেশ্য ছিল।

 

নাটকে কাজগুলো নিয়ে মন্তব্য কী?

আমি সবকিছু নিয়ে বারবার চিন্তা-ভাবনাটা একটু কম করি। আমি অনেকটা আত্মকেন্দ্রিক তাই নিজে যেটা পছন্দ করি বা নিজে যেটা ইনজয় করছি সেইটাই করছি। অতবেশি চিন্তা করি না যে সময়ের সঙ্গে কতটুকু আমি পারছি বা কারা কি কাজ করছে। এসব নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে আমি দেখি স্ক্রিপ্টগুলো ভালো লাগছে কি না, চরিত্রগুলোতে ভিন্নতা আছে কি না। সবকিছুর পর আমার দর্শক আসলে কী চায়, তা করার চেষ্টা সবসময় থাকে।

 

একক না ধারাবাহিক নিয়ে বেশি ব্যস্ত?

এখন সিঙ্গেল নাটকই বেশি করা হচ্ছে। কমার্শিয়ালের কিছু কাজ চলছে। টিভিসি, ওভিসি এগুলো করছি নাটক করার মাঝে মাঝে সময় দিয়ে।

 

হিমির নায়ক একজনই, নিলয় আলমগীর, সত্য?

আমিও দর্শক মুখে এমন কথা বহুবার শুনেছি। কিন্তু কথাটা পুরোপুরি সত্য নয়। গত ১০ বছরে আমি অনেক অভিনেতার বিপরীতেই কাজ করেছি। এ সময়ের অন্যান্য অভিনেতার বিপরীতেও একাধিক কাজ করার সুযোগ হয়েছে। তবে এটা সত্যি, অভিনয় ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বেশি কাজ করা হয়েছে নিলয় আলমগীরের সঙ্গে। এখন পর্যন্ত দেড় শতাধিক নাটকে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছি আমরা যা নিয়ে কেউ কেউ মজা করে বলেন, সর্বাধিক নাটকের জুটি হিসেবে আমাদের নাম গিনেস বুকেও উঠে যেতে পারে। আসলে আমাদের আর্টিস্টের হাতে তো নাই! আমার তো নিশো ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা। অপূর্ব ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা ছিল, সেটাও পূরণ হয়েছে। বেশ কয়েকটা কাজ করেছি। সো, ডিরেক্টর কাস্ট করলে কেন করব না?

 

জামাই-বৌ, বয়ফ্রেন্ড-গার্লফ্রেন্ড বেজড একই রকম গল্পে কাজ করতে বিরক্ত লাগে না?

আমি সবসময় চেষ্টা করি একটু ডিফারেন্স আনার। তবে হ্যাঁ, এই বিষয়গুলো মিল থাকলেও আমরা চেষ্টা করি চরিত্রায়ণ ও একটিভিটিজের পরিবর্তন আনার। আসলে সব ধরনের কাজই কিন্তু এখন হচ্ছে। অডিয়েন্স যদি থ্রিলার দেখতে চায়, সেটাও আছে, যদি কমেডি বা রোমান্টিক নাটক দেখতে চায়, সেটাও তো হচ্ছে।

 

সিনেমা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা কী?

সবারই ইচ্ছা থাকে বড় পর্দায় কাজ করার। আমারও ইচ্ছা আছে।

 

বিয়ে কবে হবে?

অনেক দেরি আছে।

সর্বশেষ খবর