শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৫৫

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ অস্ট্রেলিয়ায়

তানিয়া তুষ্টি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ অস্ট্রেলিয়ায়

আমাদের মহান শহীদ দিবস ২১ ফেব্রুয়ারি। এই শহীদ দিবসই আজ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃত। ভাষাশহীদদের ত্যাগ ও সম্মানকে চির-অম্লান করার পাশাপাশি বিশ্বের সব ভাষাভাষীর কাছে এই দিনের তাৎপর্য প্রচার ও প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে সচেষ্ট ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন প্রবাসী বাঙালিরা। শহীদ দিবসের ধারণা থেকেই অস্ট্রেলিয়ার সিডনি শহরের ওরমন্ড স্ট্রিটের অ্যাসফিল্ড পার্কে গড়ে তোলা হয়েছে ভাষাবিষয়ক মনুমেন্ট  ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ’। ২০০৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি এটি নির্মাণ করা হয়। উদ্বোধন করেন অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের তৎকালীন হাইকমিশনার এইচ ই আশরাফ-উদ-দৌলা। বিদেশে বাঙালি অধ্যুষিত প্রতিটি এলাকায় একে একে গড়ে তোলা হচ্ছে ভাষাশহীদ স্মরক শহীদ মিনার। অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থানরত বাঙালিদের সাংস্কৃতিক সংগঠন একুশে একাডেমির উদ্যোগে নির্মিত হয়েছে এই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ। স্মৃতিসৌধটি সম্পূর্ণ পাথরে তৈরি। এর সামনের অংশে একটি গ্লোব বসানো আছে। মূলত বিশ্বব্যাপী ভাষা ও সংস্কৃতিকে উৎসাহদানে ১৭ নভেম্বর, ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা করে। এর পর থেকে বহির্বিশ্বে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। তেমনি উদ্যোগের সফল বাস্তবায়ন এই স্মৃতিসৌধ। বাংলা ও বাঙালির গৌরব আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। একুশে একাডেমি, অস্ট্রেলিয়ার দীর্ঘ প্রচেষ্টার ফলস্বরূপ অস্ট্রেলিয়ায় নির্মিত প্রথম আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ এটি। অ্যাসফিল্ড কাউন্সিল, সিডনির সহযোগিতায় অ্যাসফিল্ড পার্কে এ স্মৃতিসৌধটি বাস্তবায়িত হয়।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর