Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ মে, ২০১৯ ২৩:২৯

জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক

জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই

বিশ্বে জঙ্গিদের মধ্যে এখন দলবদ্ধ হামলার চেয়ে ‘একাকী হামলা’র প্রবণতা বাড়ছে। এ প্রবণতা রোধ করা প্রায় অসম্ভব। জঙ্গিদের কর্মকা- নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে পুরোপুরি নির্মূল সম্ভব হয়নি। বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার সুনির্দিষ্ট কোনো আশঙ্কা নেই। তবে সম্পূর্ণ ঝুঁকিমুক্তও নয় দেশ। তাই বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের পাশাপাশি সার্বিক নিরাপত্তা জোরদার করেছে পুুলিশ। বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি। গতকাল পুলিশ সদর দফতরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) কার্যনির্বাহী কমিটির সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারি এমন মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার পর মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি হয়েছে। আইজিপি মনে করেন, জঙ্গি বা সন্দেহভাজনদের নিয়ে মানুষ তথ্য দিলে ‘একাকী হামলা’র প্রবণতাও প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। তিনি জানান, বুদ্ধ পূর্ণিমায় কোনো সুনির্দিষ্ট হামলার তথ্য নেই। তবে হামলা হতে পারে এমন আশঙ্কা থেকে বৌদ্ধপ্রধান এলাকাসহ সারা দেশেই নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। ঢাকা এবং পার্বত্য অঞ্চলে বুদ্ধ পূর্ণিমার শোভাযাত্রা হবে। এই শোভাযাত্রা ঘিরেও বিশেষ নিরাপত্তা থাকবে। বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দের সঙ্গেও আমরা বৈঠক করেছি।

তাদের নিরাপত্তা চাহিদাও পূরণ করা হচ্ছে। আইজি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট-আইএসের কোনো তৎপরতা বাংলাদেশে নেই। তবে কারও কারও সঙ্গে আদর্শিক যোগাযোগ থাকতে পারে। আইএসের দাবি করা বাংলাদেশ শাখার খলিফা শায়খ আবু মুহাম্মদ আল-বাঙ্গালীর বিষয়ে আইজিপি বলেন, গণমাধ্যমে আল-বাঙ্গালীর বিষয়টি এসেছে। তার হুমকির বিষয়টিও গণমাধ্যম থেকেই আমরা জানতে পেরেছি। অনুষ্ঠানে ক্র্যাব সভাপতি আবুল খায়ের, সাধারণ সম্পাদক দীপু সারোয়ার উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত আইজিপি মো. শফিকুল ইসলাম, ডিআইজি ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান, ডিআইজি ওয়াই এম বেলালুর রহমান, এআইজি সোহেল রানা, এসপি কামরুজ্জামান, জনসংযোগ কর্মকর্তা এ কে এম কামরুল আহছানসহ ক্র্যাব ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য