Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৫ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ জুন, ২০১৯ ২৩:৪০

আঙ্কটাডের প্রতিবেদন

বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে অগ্রগতি বাংলাদেশের

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে অগ্রগতি বাংলাদেশের

২০১৮ সালে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) আকর্ষণের দিক দিয়ে রেকর্ড পর্যায়ে অগ্রগতি করেছে বাংলাদেশ। গত বছর বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগের প্রবাহ ৬৮ শতাংশ বেড়ে ৩৬০ কোটি ডলারে পৌঁছেছে। বিদ্যুৎ ও পোশাকশিল্প খাতে উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগ আকর্ষণের মধ্য দিয়ে এ অগ্রগতি অর্জন সম্ভব হয়।

গতকাল জাতিসংঘের বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থা (আঙ্কটাড) প্রকাশিত বিশ্ব বিনিয়োগ প্রতিবেদন, ২০১৯-এ বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগের এ চিত্র উঠে এসেছে। আঙ্কটাডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দক্ষিণ এশিয়ায় ২০১৮ সালে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ হয়েছে ৫ হাজার ৪০০ কোটি ডলার; যা আগের বছরের তুলনায় ৪ শতাংশ বেশি। গড়ে সাড়ে ৩ শতাংশ বিনিয়োগ বেড়েছে। তবে বাংলাদেশে বিনিয়োগ বেড়েছে সবচেয়ে বেশি (৬৮ শতাংশ)। প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিদ্যুৎ উৎপাদন, পোশাক কারখানাসহ শ্রমভিত্তিক শিল্পগুলোয় উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বিনিয়োগ হওয়ার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে এফডিআইর ক্ষেত্রে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। জাপান টোব্যাকো কর্তৃক ইউনাইটেড ঢাকা টোব্যাকো অধিগ্রহণের বিষয়টিকেও এ ক্ষেত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। বাংলাদেশের স্থানীয় কোম্পানি ঢাকা টোব্যাকো কেনার মাধ্যমে গত বছর ১৫০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করেছে জাপান টোব্যাকো।

 ঐতিহাসিকভাবে দক্ষিণ এশিয়ায় বিদেশি বিনিয়োগ প্রবাহের বেশির ভাগই (৭০ থেকে ৮০ শতাংশ) হয় ভারতে। গত বছরও দেশটিতে বিদেশি বিনিয়োগের পরিমাণ সর্বোচ্চ ছিল। ২০১৮ সালে ভারতে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগের পরিমাণ ৬ শতাংশ বেড়ে ৪২০ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। উৎপাদন, যোগাযোগ ও আর্থিক সেবা খাতে বিনিয়োগের পরিমাণ ছিল সবচেয়ে বেশি। শিল্পোন্নয়ন খাতে বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল ব্যবহারের ক্ষেত্রেও বিপুল অগ্রগতি হওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে আঙ্কটাডের প্রতিবেদনে। বিশ্বব্যাংকের ইজি অব ডুয়িং বিজনেস, ২০১৯ বা সহজে ব্যবসা করার সূচক, ২০১৯-এ ১৯০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ১৭৬তম।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর