শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৯ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ জুন, ২০১৯ ২২:৫২

ঝুঁকি সেই রেলসেতুতে ৩ ঘণ্টা পর ছাড়ল ট্রেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

ঝুঁকি সেই রেলসেতুতে ৩ ঘণ্টা পর ছাড়ল ট্রেন

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ রেল জংশনের পশ্চিমে বড়চর ব্রিজ। সংস্কারের অভাবে ঝুঁকিপূর্ণ। পুরনো কাঠের স্লিপারগুলো ভেঙে সরে গেছে নির্দিষ্ট জায়গা থেকে। খুলে গেছে রেললাইনের ক্লিপগুলো। স্লিপারগুলো জায়গামতো রাখতে বাঁশ দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে। এরকম ব্রিজের ওপর দিয়েই চলাচল করছে সিলেট-ঢাকা, সিলেট-চট্টগ্রাম রুটের সব ট্রেন। এক অনুসন্ধানে দেখা গেছে, বড়চর ব্রিজের পুরাতন কাঠের স্লিপারগুলো পচে ও ঘুণে ধরে দুর্বল হয়ে পড়েছে। ব্রিজের কিছু স্লিপার ভেঙে স্থানচ্যুত হয়ে গেছে। বাঁশ দিয়ে স্লিপারগুলোকে কোনো রকম আটকে রাখা হয়েছে। সেতুর ওপর লাইনের বেশ কিছু ক্লিপ খুলে গেছে। কিছু ক্লিপের কোনো হদিসও নেই। ব্রিজের পিলারগুলোতেও  দেখা দিয়েছে একাধিক ফাটল। স্থানীয়রা জানান, সেতুটির ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার কথা অনেকবারই রেল কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ সেতুটি মেরামত বা পুনঃনির্মাণের কোনো উদ্যোগই নেয়নি। এদিকে গতকাল বেলা দুইটার দিকে সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী আন্তনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেন বরমচাল স্টেশনে পৌঁছালে ট্রেনটিকে আটকে দেয় স্থানীয় লোকজন। পরে রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রকৌশলীরা ওই রেলসেতুতে গিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ নয় বলে জানান। ফলে প্রায় তিন ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর বেলা পাঁচটার দিকে ফের ট্রেন চলাচল শুরু হয়। এই ঘটনায় কয়েকটি ট্রেন বিভিন্ন স্টেশনে আটকা পড়েছিল। পরে তা চলতে শুরু করে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর