শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ জুন, ২০২১ ২৩:৩৪

তদন্তের আগেই নাস্তার অর্থ ফেরত ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর

প্রতিদিন ডেস্ক

তদন্তের আগেই নাস্তার অর্থ ফেরত ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর
Google News

নিজ পরিবারের সকালের নাস্তার জন্য প্রতি মাসে ৩৬৫ ডলার বিল নিচ্ছিলেন ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন।

বিষয়টি তদন্তের ঘোষণা দিয়েছিল পুলিশ। এ নিয়ে সমালোচনাও শুরু হয়েছিল। হঠাৎ এমন তথ্য বেরিয়ে আসার পর বিপাকে পড়েন মারিন। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী মারিন ঘোষণা দিয়েছেন, নাস্তার  সেই অর্থ ফেরত দিচ্ছেন তিনি। রয়টার্স। পুলিশ ঘোষণা দিয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন জনগণের করের টাকা থেকে অবৈধভাবে নিজের নাস্তার জন্য ভর্তুকি নিচ্ছেন কি না- তা তদন্ত করা হবে। এরপর স্থানীয় একটি ট্যাবলয়েড এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তাতে দাবি করা হয়, প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন সরকারি বাসভবন কেসারান্টায় থাকলেও নিজ পরিবারের সকালের নাস্তার জন্য প্রতি মাসে ৩৬৫ ডলার বিল নিচ্ছেন। এ নিয়ে বিরোধীদের সমালোচনার মুখে পড়েন ৩৫ বছর বয়সী সানা। যদিও তাঁর ভাষ্য, আগের প্রধানমন্ত্রীরাও এমন সুবিধা পেয়েছেন। কিন্তু ওই ট্যাবলয়েডের প্রতিবেদনে আইন বিশেষজ্ঞরা ইঙ্গিত দেন, প্রধানমন্ত্রীর সকালের নাস্তার খরচ জনগণের করের টাকা থেকে দেওয়ার বিষয়টি ফিনল্যান্ডের আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হতে পারে। দেড় বছর আগে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন মারিন।

এরপর থেকে পরিবার নিয়ে সরকারি বাসভবনে রয়েছেন। ফলে মারিন যে পরিমাণ অর্থ ফেরত দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তা একেবারে কম নয়। তিনি বলেছেন, ১৭ হাজার মার্কিন ডলার তিনি ফেরত দেবেন। এ প্রসঙ্গে শনিবার এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘এই নাস্তা সংক্রান্ত খরচের অর্থ আমি নিজে দেব।’ এ ছাড়া তিনি এও বলেছেন, যে তদন্ত চলছে তা চলবে এবং এ-সংক্রান্ত কোনো নিয়মকানুন হালনাগাদ করার দরকার থাকলে তা-ও করা হবে।