শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:২৮

নিজেই নিজের বিউটিশিয়ান

প্রয়োজন বা অপ্রয়োজন; মেকআপ ছাড়া তরুণীদের চলে না। সবসময় তো পারলারে গিয়ে মেকআপ নেওয়া সম্ভব হয় না। তাই কয়েকটি টিপস মনে রেখে নিজেই হয়ে উঠুন নিজের বিউটিশিয়ান।

নিজেই নিজের বিউটিশিয়ান
ছবি : ফ্রাইডে

ফ্যাশনেবলের এই যুগে মেকআপ নেন না এমন মানুষ কজন খুঁজে পাওয়া যাবে। হয়তো কয়েকজন। বেশির ভাগ মানুষেরই সাজগোজ পছন্দ। ব্যস্ততা আর সময়ের অভাবের কারণে হয়তো সবার সবসময় পার্লারে গিয়ে সাজা হয় না। বাসায় বসে সহজেই বেইস মেকআপ করার পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নিন।

 

►  মুখ ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এরপর টোনার  লাগান। তেলতেলে ভাব কাটাতে টোনার দারুণ। না হলে ওয়াটার বেইস অয়েল-ফ্রি ময়েশ্চারাইজার লাগাতে পারেন। শুষ্ক ত্বকে  ময়েশ্চারাইজার লাগান। পাঁচ থেকে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন।

►  এরপর কনসিলার লাগাবেন। বিশেষ করে চেহারায় যেসব জায়গায় কালো ছোপ বা দাগ আছে সেখানে লাগিয়ে নিন। ছোপ দাগ বা স্পটের ওপর আঙ্গুল দিয়ে মিশিয়ে নিন। আপনার ত্বকের রং থেকে কনসিলারটি এক শেড গাঢ় হবে।

►  গরমে লিকুইড ফাউন্ডেশন এড়িয়ে যান। পেসড পাউডার বা ডুয়েল ফিনিশড ফাউন্ডেশন লাগাবেন। খেয়াল রাখবেন রাতের বেলায় ফাউন্ডেশন লাগাবেন স্পঞ্জ ভিজিয়ে, দিনে পাউডার ফাউন্ডেশন হিসেবেই লাগাবেন। ফাউন্ডেশনের রং হতে হবে ত্বকের সঙ্গে মিলিয়ে। ফাউন্ডেশন লাগানোর পর এক টুকরো বরফ পুরো মুখে হালকাভাবে ঘষে দিতে হবে। রাতে স্টিক ফাউন্ডেশন ব্যবহার না করে প্যান ব্যবহার করতে পারবেন। এর ওপর লুজ পাউডার লাগিয়ে নিন। তবে এটা অনেক ভারি মেকআপ।

►   যত কম সম্ভব মেকআপ করবেন। হালকা মেকআপে নিজেকে সাজিয়ে তুলতে কাজলের ভূমিকা অস্বীকার করা যায় না। দিনের বেলার সাজে স্মাজপ্রুফ কাজল আর রাতে চোখের সাজে মাশকারা এবং আইলাইনার ব্যবহার করতে পারেন।

 

প্রয়োজনীয় পরামর্শ

ত্বকের সতেজ ভাব অনেক দিন ধরে রাখা সম্ভব মেকআপ কম ব্যবহারের ফলে। খাবারের তালিকায় ফলমূল, শাকসবজি বেশি বেশি রাখুন। প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। ধৈর্য ধরে নিজের ত্বককে বুঝতে হবে। সময় দিতে হবে।

 

টোনার বা ময়েশ্চারাইজার লাগানোর পর নিচের পদ্ধতিগুলোও করতে পারেন :

 

মিনারেল পাউডার : ফাউন্ডেশন ব্যবহার করতে না চাইলে এটি লাগাতে পারেন। পাউডার ব্রাশের সাহায্যে ত্বকের সঙ্গে ভালো করে ব্লে­ন্ড করে নিতে হবে। এতে ত্বক মসৃণ দেখাবে।

 

ব্রোঞ্জার : বাজারে বিভিন্ন শেডের ব্রোঞ্জার পাওয়া যায়। নিজের শেড বুঝে কিনতে হবে। লাগাতে হবে পাউডার ব্রাশের সাহায্যে।

 

লুমিনেটর : যাদের ত্বক ভালো, তারা লুমিনেটর লাগাতে পারবেন। এটি লিকুইড লোশন। লাগানোর পর ত্বকে উজ্জ্বল একটি আভা আসবে। রাতে লাগালে ভালো লাগবে বেশি।

 

এবার পরিষ্কার : মেকআপ ব্যবহারের পর তুলতে হবে ভালোভাবে। এ জন্য দরকার একটি মেকআপ ক্লিনজার। তুলার সাহায্যে ক্লিনজার দিয়ে ভালোভাবে মেকআপ তুলুন। এরপর ফেসওয়াশ দিয়ে ধুতে হবে। পরিষ্কার ত্বকে ক্রিম বা নাইট ক্রিম ব্যবহার করুন।

 

লেখা : উম্মে হানি


আপনার মন্তব্য