শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:৪৫

পুজোর আয়োজন

পুজোর কয়েক দিন রসনাতৃপ্তির পুরোদস্তুর সুযোগ পাওয়া যায়। ঝালে-ঝোলে মাখা সুস্বাদু খাবার কবজি ডুবিয়ে চেখে দেখারও সেরা সময় এটি। রেসিপি প্রদান করেছেন রন্ধন তারকা রেজওয়ানা হক।

পুজোর আয়োজন

লাউ চিংড়ি

উপকরণ

লাউ : ১টা

চিংড়ি : ৩০০ গ্রাম

আদা বাটা : ১ চা চামচ

জিরা বাটা : ১ চা চামচ

পিয়াজ (বড়) : ১টা

টমেটো : ১টা

তেজপাতা : ৩/৪টা

কাঁচামরিচ : ৫/৬টা

জিরা গুঁড়া : আধা চা চামচ

ঘি : পরিমাণমতো

গরম মসলা : পরিমাণমতো

লবণ-চিনি : স্বাদমতো।

প্রণালি

প্রথমে লাউ ঝিরিঝিরি করে কেটে ধুয়ে নিন। এবার একটি পাত্রে লাউ দিয়ে মাঝারি আঁচে সেদ্ধ করে নিন। পিয়াজ সরু করে কেটে নিন। এরপর একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে নিন। চিংড়িগুলো লবণ

ও হলুদ মাখিয়ে ভেজে তুলে ফেলুন। ওই তেলেই পিয়াজ ভেজে জিরা ও তেজপাতা ফোড়ন দিন। তারপর আদা বাটা, জিরা বাটা আর টমেটো দিয়ে কষাতে থাকুন। এবার লাউ দিন। পরিমাণমতো লবণ ও চিনি দিন। এবার সাজানোর জন্য কিছু চিংড়ি রেখে বাকিটা মিশিয়ে দিন। পানি শুকিয়ে যাওয়া অব্দি রান্না করুন। হয়ে এলে ঘি, কাঁচামরিচ, আর গরম মসলা মিশিয়ে নামিয়ে নিন।

 

ভাজা মুগডাল

উপকরণ

মুগডাল : ২৫০ গ্রাম

আদা বাটা : ২ টেবিল চামচ

তেজপাতা : ৩টা

শুকনো মরিচ : ২টা

জিরা গুঁড়া : আধা চামচ

হলুদ গুঁড়া : আধা চা চামচ

মটরশুঁটি : ৫০ গ্রাম

কাঁচামরিচ : ২/৩টা

নারিকেল কুচি-কিশমিশ : ২৫ গ্রাম

লবণ-চিনি : স্বাদমতো

সরিষার তেল : ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি

প্রথমে একটি গরম কড়াইয়ে মুগডাল ভেজে হালকা রং ধরলে নামিয়ে নিন ঠান্ডা করে নিন। এবার ভাজা মুগডাল ধুয়ে প্রেসার কুকারে দিন, আদা বাটা, লবণ, হলুদ এবং দুই কাপ পানি দিয়ে ডাল সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। এরপর প্রেসার কুকার দুটো সিটি দিলে নামিয়ে নিন। আরেকটি কড়াইয়ে সরিষার তেলে নারিকেল ভেজে নিন। এর সঙ্গে জিরা, কাঁচামরিচ ও আদা বাটা মিশিয়ে ভাজুন। গন্ধ বেরোলে সেদ্ধ ডাল, কাঁচামরিচ এবং হলুদ মিশিয়ে  নিন। এবার কিশমিশ, লবণ ও চিনি দিয়ে ডাল ঘন হলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

 

পটোলের দোলমা

উপকরণ

পটোল : ৪টা

নারিকেল কোরানো : ১৫০ গ্রাম

পিয়াজ কুচি : ২ টেবিল চামচ

পিয়াজ বাটা : ২ টেবিল চামচ

আদা বাটা : আধা চা চামচ

রসুন বাটা : আধা চা চামচ

জিরা গুঁড়া : আধা চামচ

হলুদ গুঁড়া : আধা চা চামচ

মরিচ গুঁড়া : সামান্য

গরম মসলা গুড়া : ১/৩ চা চামচ

আলু সেদ্ধ : ১টা

লবণ : স্বাদমতো

তেল : পরিমাণমতো।

প্রণালি

পটোলের খোসা ফেলে আস্ত পটোলের দুই পাশের মাথা কেটে ভিতরের সব বের করে নিন। সামান্য হলুদ ও লবণ দিয়ে পটোল মাখিয়ে রেখে দিন। প্যানে একদম সামান্য তেল গরম করে পিয়াজকুচি, হলুদ-মরিচ-জিরা গুঁড়া, আদা-রসুন বাটা, লবণ আর গরমমসলার গুঁড়া দিয়ে কোরানো নারিকেল রান্না করে ঠান্ডা করে নিন। এখন পটোলের খোলের মধ্যে আস্তে আস্তে চেপে পুরগুলো ভরে নিন। চটকে রাখা আলু দিয়ে পটোলের দুই পাশের মুখ বন্ধ করে নিন। প্যানে অল্প তেল দিয়ে পুরভরা পটোলগুলো অল্প আঁচে ভেজে তুলে রাখুন। খেয়াল রাখবেন  যেন পটোল পুড়ে না যায়। সেই একই তেলেই বাটা পিয়াজ, বাকি হলুদ-মরিচ-জিরা গুঁড়া, আদা-রসুনবাটা আর লবণ দিয়ে কষিয়ে পটোলগুলো ছেড়ে দিন এবং সিদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। প্রয়োজনে অল্প গরম পানি দিতে পারেন। মসলা মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে নিন।


আপনার মন্তব্য