Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ মার্চ, ২০১৯ ০০:৩১
আপডেট : ২০ মার্চ, ২০১৯ ০২:৪৪

খবর নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড'র

২০০ জনও দেখেনি ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার লাইভ : ফেসবুক

অনলাইন ডেস্ক

২০০ জনও দেখেনি ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার লাইভ : ফেসবুক

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলা চালানোর সময় ফেসবুকে লাইভে আসেন ঘাতক ব্রেন্টন ট্যারান্ট। কিন্তু তিনি যে ফেসবুক লাইভ করেন তা ২০০ জনও দেখেনি বলে দাবি করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। 

ফেসবুক জানায়, ব্রেন্টন ট্যারান্ট হামলার সেই দৃশ্য টানা ১৭ মিনিট ফেসবুকে লাইভ করেন। হামলার ওই লাইভ ভিডিওটি ফেসবুক থেকে মুছে ফেলার আগে সেটি মাত্র চার হাজারবার দেখা হয়েছে। 

ফেসবুকের গ্লোবাল পলিসি বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট মণিকা বিকার্ট হেরাল্ডকে বলেন, ‘হামলার ঘটনাটি যখন লাইভ করা হচ্ছিল তখন তা দেখে ২০০ জনেরও কম মানুষ। তাছাড়া ভিডিওটি লাইভ হওয়ার পর সেটি মুছে ফেলা পর্যন্ত আনুমানিক ৪ হাজার মানুষ তা দেখে।’

মণিকা বিকার্ট আরও বলেন, আমরা প্রথম বিষয়টি জানতে পারি লাইভ নিউজিল্যান্ডের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মাধ্যমে। আর তাদের কাছ থেকে আপত্তি আসার পর আমরা দ্রুত সেটি মুছে ফেলি।

এর আগে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর ছড়িয়ে পড়া ভিডিও সরিয়ে ফেলতে কাজ করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ঘটনার পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ১৫ লাখ ভিডিও সরিয়ে ফেলা হয়ে বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি। সেই সঙ্গে ফেসবুক প্ল্যাটফর্ম থেকে ওই ঘটনার ভিডিও পুরোপুরি সরিয়ে ফেলতে কাজ করে প্রতিষ্ঠানটি।

গত রবিবার টুইটারে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানায়। ওই বার্তায় ফেসবুক নিউজিল্যান্ডের কর্মকর্তা মিয়া গারলিক বলেছেন, “আমরা প্রযুক্তি ও মানুষের সাহায্য নিয়ে ওই ভিডিও সরিয়ে ফেলতে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছি।”

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের দু’টি মসজিদে হামলার ঘটনায় অন্তত ৪৯ জন নিহত হয়েছেন। ৪১ জন নিহত হয়েছেন আল নূর মসজিদে এবং ৭ জন মারা গেছেন লিনউড মসজিদের ঘটনায়। আরেকজন হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার সময় মারা যান। নিহতদের মধ্যে অন্তত ৩ জন বাংলাদেশি নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর


আপনার মন্তব্য