শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর, ২০২০ ২২:০৮

'সেখানে যুদ্ধবিরতি কার্যকরই হচ্ছে না'

অনলাইন ডেস্ক

'সেখানে যুদ্ধবিরতি কার্যকরই হচ্ছে না'

মানবিক ত্রাণ তৎপরতা চালানোর জন্য গতরাতে নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলে যে নতুন যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠা হয়েছে তাও লঙ্ঘন করা হচ্ছে। এজন্য আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া পরস্পরকে দোষারোপ করেছে।

আজারবাইজানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর গ্যানজাতে কয়েকদফা ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর দু পক্ষ যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়। রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে আলাপের পর দুপক্ষ যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে। গতকালের টেলিফোন আলাপে ল্যাভরভ অত্যন্ত জোরালো ভাষায় যুদ্ধবিরতি চুক্তি মেনে চলার আহ্বান জানান।

আজারবাইজান বলেছে, আর্মেনিয়া সমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদীরা জাবরেইল শহরে রাতভর মর্টার ও কামানের গোলাবর্ষণ করেছে। আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, তাদের সামরিক বাহিনী পর্যাপ্ত পাল্টা ব্যবস্থা নিয়েছে এবং সামরিক বাহিনীতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটে নি।
শুশান স্টেপানিয়ান

অন্যদিকে, আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের নারী মুখপাত্র শুশান স্টেপানিয়ান  অভিযোগ করেছেন, গতরাতে আজারবাইজানের বাহিনী দুদফা গোলাবর্ষণ করে। তিনি ফেইসবুক পোস্টে লিখেছেন, গতরাতের গোলাগুলিতে দুপক্ষেই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

প্রায় এক সপ্তাহ আগে মস্কোয় রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া যুদ্ধবিরতি চুক্তি করে এবং তা বাস্তবায়ন শুরু হয়েছিল। কিন্তু দুপক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের কারণে যুদ্ধবিরতি চুক্তি যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা যায় নি।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর