শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ মে, ২০২১ ২৩:৩১

চীন থেকে দক্ষিণ কোরিয়ায় আনা সুস্বাদু ‘কিমচি’র মধ্যে প্লেগ জীবাণু

প্রতিদিন ডেস্ক

Google News

দক্ষিণ কোরীয়রা ‘কিমচি’ নামে মজাদার একটি খাবার খেতে অভ্যস্ত। এর চাহিদা প্রচুর। চাহিদা মেটানোর জন্য চীন থেকে আমদানি করতে হয়। এতকাল আমদানি করা হচ্ছিল নিশ্চিন্তে। গত মার্চে খাদ্যটির যে চালান চীন থেকে আনা হয়েছিল তাতে পাওয়া গেছে ‘ইয়েরসিনিয়া এন্টেরোকলটিকা’ জীবাণু যা খাদ্যে ‘ইয়েরসিনিয়োসিস’ নামক বিষক্রিয়া ঘটায়। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট জানায়, দক্ষিণ কোরিয়ার খাদ্য ও ওষুধ নিরাপত্তা মন্ত্রণালয় বলেছে, ইয়েরসিনিয়োসিসে আক্রান্তরা প্লেগ রোগে ভোগে। চীন থেকে আমদানিকৃত কিমচিগুলোর ১৫টির মধ্যে ওই প্লেগ জীবাণু পাওয়া গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে ইয়েরসিনিয়োসিসে ভুগে প্রতি বছর গড়ে ৩৫ ব্যক্তি প্রাণ হারায়।

ইয়েরসিনিয়োসিসের লক্ষণ বয়সভেদে বিভিন্ন রকম হয়। জ্বর ও পেট ব্যথা হলে কেউ কেউ মনে করে অ্যাপেনডিসাইনিস হয়েছে। শিশুদের ক্ষেত্রে হতে পারে রক্তক্ষয়ী উদরাময়। কোরীয় কর্তৃপক্ষ বলেছেন, দোষ পাওয়া কিমচির চালান চীনে ফেরত পাঠাতে কিংবা কোরীয় বাজারে না ছাড়ার নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

‘ডিহাইড্রো অ্যাসিটেট’ নামের প্রিজারভেটিভ ব্যবহার কোরিয়ায় নিষিদ্ধ। কিন্তু চীন থেকে আমদানিকৃত লবণে চুবানো বাঁধাকপির সালাদে এই প্রিজারভেটিভ পাওয়া গেছে। এর পর থেকেই কিমচি নিয়ে চীনা ও কোরীয় নাগরিকরা সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র বাদানুবাদ করে চলে যাকে পশ্চিমী পত্রিকায় ‘কিমচি যুদ্ধ’ বলে অভিহিত করা হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রতি বছর ভোজ্য কিমচির ৩৫ ভাগ আসে চীন থেকে। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে আমদানি করা হয়েছে ৬৮ হাজার টন কিমচি।