Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ জুন, ২০১৯ ১৩:৩৯
আপডেট : ২৭ জুন, ২০১৯ ১৩:৪৯

বিজেপিকে রুখতে একজোট হওয়ার আহ্বান মমতার

অনলাইন ডেস্ক

বিজেপিকে রুখতে একজোট হওয়ার আহ্বান মমতার

পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির উত্থান রুখতে ফের দলমত নির্বিশেষে একজোট হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

মমতা ব্যানার্জির দাবি, রাজ্যে বিজেপি আসলে বাড়বে জাত-ধর্মের বিভেদ। তাই গেরুয়া শিবিরকে রুখতে শাসকদলের সঙ্গে এক হয়ে লড়তে হবে কংগ্রেস, বাম দলকেও। যদিও, তার সেই ডাকে সাড়া দেয়নি বাকি দুই দল। 

বিধানসভায় রাজ্যপালের বক্তব্য ঘিরে তৈরি হওয়া এক বিতর্কের উত্তর দিতে গিয়ে তিনি বলেন, রাজ্য ও রাষ্ট্র উভয় ক্ষেত্রেই সমান্তরাল সরকার চালানোর চেষ্টা করছে বিজেপি। সেই অপচেষ্টা রুখতে এক হতে হবে সমস্ত রাজনৈতিক দলকে।  

এই প্রসঙ্গে মমতার মত, বিজেপিকে ভোট দিয়ে জিতিয়ে আনার পরেই ভাটপাড়া কাণ্ড নিশ্চয়ই চোখ খুলে দিয়েছে সবার। গেরুয়া শিবির পাকাপাকি ভাবে এই রাজ্যে ক্ষমতায় আসলে এরকম আরও ঘটনা ঘটবে। তাই ঘর সুরক্ষিত রাখতে, রাজ্য সুরক্ষিত রাখতে এবং রাজ্যবাসীকে সুরক্ষা দিতে আমাদের জোট বাঁধা অতি জরুরি। তার মানে এই নয় যে, সব দলে ভেঙে একটাই দল গড়ার কথা বলছি। সমস্ত ক্ষেত্রে প্রতিটি রাজনৈতিক দল স্বতন্ত্র হলেও এই এক বিষয়ে আমরা রাজ্য এবং জাতীয় স্তরে একজোট হতেই পারি।

একই সঙ্গে তিনি ২৩ টি বিরোধী দলকে একযোগে ইভিএমের দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের আহ্বান জানান মমতা।

মমতার কথায়, নির্বাচনের আগে আমরা (বিরোধী দল) ইভিএম ব্যবহারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেছিলাম। সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থও হয়েছিলাম সবাই। কিন্তু আমাদের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। প্রয়োজনে আবারও ইভিএম দুর্নীতি রুখতে আদালতে যাব সবাই। 

পাশাপাশি তিনি শাসকদলের সমর্থনের গুরুত্বের কথা বলতে গিয়ে কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা আব্দুল মান্নানকে বলেন, বাংলায় বিজেপিকে রুখতে এই মুহূর্তে শাসকদলের সমালোচনা না করে তৃণমূলের হাত শক্ত করাই সম্ভবত বুদ্ধিমানের কাজ। সূত্র : এনডিটিভি


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য