শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ মে, ২০২১ ১৯:০৯
আপডেট : ১৮ মে, ২০২১ ১৯:২৩
প্রিন্ট করুন printer

না ফেরার দেশে সাংবাদিক শীর্ষ বন্দোপাধ্যায়

দীপক দেবনাথ, কলকাতা:

না ফেরার দেশে সাংবাদিক শীর্ষ বন্দোপাধ্যায়
Google News

বাংলা সাহিত্য জগতের আবারও এক নক্ষত্রের পতন। প্রয়াত হলেন সাহিত্যিক শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার গভীর রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কলকাতার গড়িয়াহাটের বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৪। তিনি স্ত্রী ও কন্যাকে রেখে গেছেন। 

পরিবারের তরফ থেকে জানা গিয়েছে সোমবার গভীর রাতে বাথরুমে জান শীর্ষ। দীর্ঘ সময় কোনো সাড়া না পেয়ে তার কন্যা দরজা খুলে দেখেন ওখানেই সংজ্ঞা হারিয়েছেন লেখক। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা দেন। চিকিৎসকের অভিমত হৃদযন্ত্র বিকল হওয়ার কারণে তার মৃত্যু ঘটেছে। তবে কয়েক বছর ধরে ডায়াবেটিসে ভুগছিলেন লেখক। সোমবার রাতে অনেকক্ষণ সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয়ও ছিলেন। নিজের একটি জলরঙে আঁকা ছবির পোস্ট শেষে শেয়ার করেছিলেন। ক্যাপশানে লেখেন 'ওরে ঝড়....'

একাধিক বাংলা দৈনিক সংবাদপত্র ও টেলিভিশন চ্যানেলে সুনামের সাথে কাজ করেছেন শীর্ষ বন্দোপাধ্যায়। তার আকার হাতও ছিল চমৎকার। তিনি আজকাল পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। বেশ কিছুদিন জার্মানিতে ডয়চেভেলে বেতারের বাংলা বিভাগে অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। 

সুকণ্ঠ এবং সুব্যক্তিত্বের অধিকারি শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিকতায় কৃতিত্ব অর্জনের সঙ্গে সাহিত্যিক হিসেবেও প্রতিষ্ঠা লাভ করেন। লেখা ও বলা উভয় বিষয়েই তাঁর বিশেষ পারদর্শীতা ছিল। তাঁর প্রথম উপন্যাস ‘শার্দুল সুন্দরী’ ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল। উপন্যাসের পাশাপাশি ছোটগল্প ও প্রবন্ধও লিখেছিলেন তিনি। 

তার মৃত্যুতে গভীর শোকজ্ঞাপন করা হয়েছে কলকাতা প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে। এক শোকবার্তায় বলা হয়েছে ‘শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের আকস্মিক জীবনাবসানে সাংবাদিক মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কলকাতা প্রেস ক্লাব, এই উদীয়মান সাংবাদিক ও সাহিত্যিকের অকাল প্রয়াণে তাঁর পরিবার ও সতীর্থদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করছে।’ 

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর