২৯ জুন, ২০২১ ১০:৪৪

পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বনাম রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বাগযুদ্ধ

অনলাইন ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বনাম রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বাগযুদ্ধ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। রাজ্যপাল হাওয়ালা কেলেঙ্কারিতে যুক্ত ছিলেন, দাবি মমতার। সোমবার এমন অভিযোগ করেন তিনি। এর প্রতিক্রিয়ায় জগদীপ ধনখড় সোমবার সোমবার সন্ধ্যায় বলেন, "এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। আমার বিরুদ্ধে জনগণের সামনে মিথ্যা অভিযোগ এনেছেন মুখ্যমন্ত্রী। জৈন হাওয়ালা মামলায় কেউ দোষী সাব্যস্ত নয়। চার্জশিটে আমার নাম নেই। আমার বিরুদ্ধে কোনও তথ্য প্রমাণ নেই। জনগণের সামনে উনি ভুল তথ্য দিয়েছেন।''

উত্তরবঙ্গ সফর সেরে ফিরে আসার আগেই জিটিএ-কে দুর্নীতির আখড়া বলে আখ্যা দিয়েছেন ধনখড়। সেখানে সিএজি দিয়ে অডিট করানোর কথাও বলেছেন তিনি। এরপরেই পাল্টা অভিযোগ করেন মমতা। তিনি বলেন, ‘উনি নিজে বড় দুর্নীতগ্রস্ত। হাওয়ালা জৈন কাণ্ডের চার্জশিটে কার নাম ছিল? তারপর পার পেলেন কীভাবে?’

মমতার কথায়, ‘জিটিএ-র দুর্নীতির কথা বলার আগে কাদের নিয়ে, কত খরচ করে উনি দার্জিলিং গেলেন, রাজভবনে কত খরচ হল, তার তদন্ত হোক।’

মুখ্যমন্ত্রী এও বললেন, রাজ্য সরকার নিজে অডিট করছে, সিএজি অডিটের কোনও প্রয়োজন নেই।

সাত দিনের জন্য দার্জিলিং সফর শেষে জিটিএ নিয়ে ব্যাপক অসন্তোষ প্রকাশ করেন জগদীপ ধনখড়। বহুদিন নির্বাচন না হওয়া, অডিট না নিয়ে তিনি বলেন, জিটিএ দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। উন্নয়নের পয়সা নয়ছয় করা হচ্ছে। এ কথা শুনেই পাল্টা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বঙ্গ রাজনীতিতে মুখ্যমন্ত্রী বনাম রাজ্যপাল তরজা নতুন নয়। প্রায় রোজই টানাপোড়েন চলে। কিন্তু আজ একেবারে অতীত খুঁড়ে রাজ্যপালের সঙ্গে সরাসরি দুর্নীতির যোগের কথা বলেছেন মমতা। 

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর