শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৩৬

অষ্টম কলাম

৯ মাসের মেয়েকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা

পাষণ্ড পিতার কাণ্ড

পাবনা প্রতিনিধি

৯ মাসের মেয়েকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা

ঘুমে ব্যাঘাত ঘটানোয় পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় নয় মাসের মেয়েকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেছেন এক বাবা। বৃহস্পতিবার বিকালে ভাঙ্গুড়ার দিলপাশার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই বাবা ওমর ফারুককে (২৫) আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় শিশুটির মা আমেনা খাতুন বাদী হয়ে ভাঙ্গুড়া থানায় মামলা করেছেন।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ওমর ফারুক দীর্ঘদিন ধরে মাদক সেবন করে আসছেন। বৃহস্পতিবার বিকালে তিনি মদ পান করে নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে পড়েন। এ সময় পাশে ঘুমিয়ে থাকা নয় মাস বয়সী শিশুকন্যা জান্নাতুল ফেরদৌস হঠাৎ কান্না করলে ফারুকের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ফারুক প্রথমে তার পিঠের নিচে মেয়েকে চাপা দেন। পরে মেয়েকে বাড়ির পাশে পুকুরের পানিতে কচুরিপানার নিচে ডুবিয়ে রাখে।

এদিকে শিশুটির মা আমেনা খাতুন হাতের কাজ সেরে বাচ্চার খোঁজ করেন। তার স্বামী ফারুক মেয়ে কোথায় জানেন না বলে মাছ ধরার কথা বলে ঘর থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করেন। আমেনার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে যান। শিশুটির খোঁজ জানাতে অস্বীকৃতি জানালে প্রতিবেশীরা ফারুককে মারধর করেন। একপর্যায়ে তিনি মেয়েকে হত্যা করার কথা জানান। খবর পেয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ভাঙ্গুড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম ও উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুভাষ ঘটনাস্থলে গিয়ে পুকুর থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করেন এবং ফারুককে আটক করে থানায় নিয়ে যান।

ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ শাহীন কামাল জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। শিশুর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গতকাল সকালে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ফারুককে আদালতের মাধ্যমে পাবনা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর