Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ জুলাই, ২০১৯ ০০:০৩

সরকারি জমি উদ্ধারে পুরস্কার মিলবে ডিসিদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকারি জমি উদ্ধারে পুরস্কার মিলবে ডিসিদের

জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের চতুর্থ দিনে গতকাল মশা মারার ওষুধের কার্যকারিতা, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও ভেজাল খাদ্যে, ভূমি উদ্ধার এবং নারী ও শিশু নির্যাতন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সম্মেলনে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সম্মেলনের চতুর্থ দিনে মোট ১৫টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কার্য অধিবেশন ছিল। এগুলো হলো- স্থানীয় সরকার বিভাগ, পল্লী উন্নয়ন ও  সমবায় বিভাগ, ভূমি মন্ত্রণালয়, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়, রেলপথ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিকল্পনা বিভাগ, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, কৃষি মন্ত্রণালয়, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়। এসব মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিটি অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।  বৈঠক শেষে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ২৫ জুলাই থেকে ১ আগস্ট পর্যন্ত দেশব্যাপী বিশেষ মশা নিধন অভিযান শুরু করা হবে। রাজধানী মশা মারার ওষুধের কার্যকারিতা না থাকার বিষয়ে তিনি বলেন, এ ওষুধ পরীক্ষা করতে সিটি করপোরেশনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আমরা তো ইচ্ছা করলেই এমন কেমিক্যাল পরিবেশে ছিটাতে পারি না, যা দিয়ে মশা মারতে গিয়ে মানুষ মারা যাবে, মানুষের ক্ষতি হবে। পৌরসভার কর্মচারীদের আন্দোলনের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তাজুল ইসলাম বলেন, সক্ষমতা না থাকলে পৌরসভা হিসেবে থাকা ঠিক নয়।

আয় করবে এবং ব্যয় করবে এই আদলে পৌরসভা গঠিত হয়েছে। সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের সঙ্গে কার্যঅধিবেশন শেষে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, বন্যা পরিস্থিতিতে সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত তিন বাহিনী। ডিসিদের সঙ্গে আলোচনার বিষয়ে সেনাপ্রধান সাংবাদিকদের বলেন, নিজেদের মধ্যে আন্ডারস্ট্যান্ডিং কীভাবে আরও ভালো করা যায়, এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা ডিসিদের জানিয়েছি যে কোনো সময় যে কোনো সহযোগিতা চাইলে আর্মি, নেভি, এয়ারফোর্স সবাই প্রস্তুত আছি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক সাংবাদিকদের বলেন, ভেজাল খাদ্য ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে। এই অভিযান জোরদারে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, বৈঠকে জেলা প্রশাসকদের কাছে কমিউনিটি ক্লিনিক ও স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে সার্বিক সহযোগিতা চেয়েছি। এ বিষয়ে তারা সক্রিয় থেকে দায়িত্ব পালনে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন। একই সঙ্গে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ছাড়া কোনো ফার্মেসি যাতে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ বিক্রি করতে না পারে, সে বিষয়ে মনিটরিংয়ের জন্য নির্দেশ দিয়েছি। জেলা ও উপজেলার ক্লিনিকগুলোতে যাতে অতিরিক্ত ফি আদায় করা না হয়, সে বিষয়ে মনিটরিং বাড়াতেও নির্দেশ দিয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত অধিবেশন শেষে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ সাংবাদিকদের বলেন, আমি ডিসিদের বলেছি যে যত বেশি সরকারি ভূমি উদ্ধার করতে পারবেন তাদের পুরস্কৃত করা হবে। তিনি বলেন, উন্নয়ন কাজের জন্য ভূমি অধিগ্রহণে ন্যায্য মূল্য  নিশ্চিত করার পাশাপাশি জনগণের যাতে কোনো ভোগান্তি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখার পরামর্শ দিয়েছি।


আপনার মন্তব্য