Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৪৩

কোরবানির হাটে আসবে বিগ বস টাইটানিক মেসি

নিজস্ব প্রতিবেদক

কোরবানির হাটে আসবে বিগ বস টাইটানিক মেসি

ঈদুল আজহা আসছে। ঈদের বাজারে আসছে বস, ঐতিহাসিক টাইটানিক, মেসি। তবে এই নামগুলো কোনো পদবি, জাহাজ বা ব্যক্তি নয়। এগুলো বিক্রির জন্য আনা বিশালাকৃতির গরু। বিক্রেতার দাবি টাইটানিক এবার দেশের বাজারে সবচেয়ে বড় গরু। ঢাকা জেলার ধামরাই থেকে টাইটানিককে আনা হয়েছে। ওজন দেড় হাজার কেজি। রাজধানীর মোহাম্মদপুরের সাদিক অ্যাগ্রো ফার্ম নামের একটি খামারে রাখা হয়েছে এসব গরু। অনেকে ক্যামেরা নিয়ে টাইটানিক, বসের ছবি তুলছেন। এরই মধ্যে রাজধানীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ক্রেতারা আসছেন। তবে ক্রেতার চেয়ে উৎসুক দর্শনার্থীদের ভিড়ই বেশি। বিশাল দেহি এসব গরুর সঙ্গে অনেকে ছবি তুলছেন। মোহম্মদপুরের ওই এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, নজরকাড়া আরও অনেক বিশাল আকৃতির গরু আনা হয়েছে। এর মধ্যে একটির নাম মেসি। বাদামি রঙের এ গরুর উচ্চতা ৬ ফুট, লম্বায় ৮ ফুট। বয়স সাড়ে তিন বছর। ওজন ১ হাজার ২০০ কেজি। গরুটি ব্রাহমা জাতের। এর দাম হাঁকা হচ্ছে ৩৫ লাখ টাকা। একই জাতের আরেকটি গরুর নাম বস। বসের বয়স চার বছর, ধূসর রঙের গরুটির ওজন ১ হাজার ৩০০ কেজির মতো। যুক্তরাষ্ট্র থেকে আনা হয়েছে এই বিশাল গরু। দাম চাওয়া হয়েছিল ৪৫ লাখ টাকা। এক ক্রেতা ৩৫ লাখ টাকায় কিনেছেন বসকে। এবারের কোরবানির ঈদ উপলক্ষে আশপাশের আরও অনেকে খামারে প্রচুর গরু এনে রাখা হয়েছে। বিশাল আকৃতির বিভিন্ন জাতের গরু নিয়ে এবার কোরবানির বাজার ক্রেতাদের আকর্ষণ করতে চাচ্ছে। কোরবানির ঈদের আরও তিন সপ্তাহের বেশি সময় বাকি। তবে এখনই জমজমাট হয়ে উঠেছে এসব খামার। শামিয়ানা টানিয়ে রাখা হচ্ছে এসব খামারে। পশুর বেচাকেনাও হচ্ছে বলে জানিয়েছেন খামারিরা। ঢাকা ও ঢাকার বাইরের জেলা থেকে ক্রেতারা আসছেন। ক্রেতারা এসে গরু দেখছেন। অনেকে পছন্দ ও দামে মিললে কিছু টাকা দিয়ে ‘বুকিং’ করে যাচ্ছেন। ঈদের আগে বাকি টাকা পরিশোধ করে গরু নিয়ে যাওয়ার সুযোগও রয়েছে। শুধু গরু নয় এখানে মিলছে দেশি-বিদেশি নানা জাতের ছাগল। মধ্যপ্রাচ্য থেকে আনা হয়েছে দুম্বা। কোরবানির আগে আনা হবে উট। ভারত ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে উট আনা হচ্ছে বলে বিক্রেতারা জানিয়েছেন। এসব পশুর দাম আকাশছোঁয়া বলে জানিয়েছেন ক্রেতারা। তবুও ক্রেতা দর্শনার্থীদের ভিড় প্রতিদিনই বাড়ছে।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর