শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:২৩

খুন করে ঝোপে রাখা হলো শিশুকে

স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ গাজীপুরে

প্রতিদিন ডেস্ক

খুন করে ঝোপে রাখা হলো শিশুকে

জয়পুরহাটে বস্তাবন্দী অবস্থায় এক শিশুর ও গাজীপুরে এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সংক্রান্ত জয়পুরহাট ও গাজীপুর প্রতিনিধির পাঠানো রিপোর্ট-

জয়পুরহাট : বস্তাবন্দী অবস্থায় ইরাম হোসেন (৫) নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে জয়পুরহাট সদর উপজেলার চকশ্যাম গ্রামে ওই শিশুর বাড়ির পাশের ঝোপঝাড় থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ইরাম হোসেন জয়পুরহাট সদর উপজেলার চকশ্যাম গ্রামের এনামুল হোসেনের ছেলে।

 

নিহতের পরিবার জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে ইরাম অন্য শিশুদের সঙ্গে খেলতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ইরামকে পাওয়া না যাওয়ায় সন্ধ্যায় সদর থানা পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহরিয়ার খান জানান, গতকাল সকালে নিহতের স্বজনরা বাড়ির পাশে ঝোপঝাড়ে খোঁজাখুঁিজ করতে গিয়ে ইরামের বস্তাবন্দী মরদেহ দেখতে পান। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট 

জেলা আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। শিশুটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। এ ব্যাপারে নিহতের বাবা এনামুল হোসেন বাদী হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এর মধ্যে প্রতিবেশী রেজাউল ইসলাম এবং তার ছেলে রাজু ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাজু ইরামকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। বাবা-মার অনুপস্থিতিতে রাজু আহম্মেদ শিশুটিকে বলাৎকার করতে ব্যর্থ হয়ে খুন করেছে বলে জানায়।

গাজীপুর : জান্নাতুল মাওয়া নাবিলা ওরফে জয়া (১৫) নামে নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জান্নাতুল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দক্ষিণ সালনার মোল্লাপাড়া এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে। সে সালনার আমিনুল ইসলাম মডেল স্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়ত। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে আলাদা কক্ষে ঘুমিয়ে ছিল জান্নাতুল। গতকাল সকালে পরিবারের সদস্যরা ঘরে ঢুকে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় জান্নাতুলকে ঝুলতে দেখেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর থানার এসআই সৈয়দ বায়েজিদ হোসেন জানান, জান্নাতুলের কক্ষের দরজা ভিতর থেকে খোলা ছিল। পাশেই তার মায়ের কক্ষ। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর