শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩৭

দুর্নীতিমুক্ত দেশ চাই

-মিছবাহুর রহমান চৌধুরী

দুর্নীতিমুক্ত দেশ চাই

বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ চাই। সামাজিক অবক্ষয় বন্ধ করতে চাই। উন্নয়নে অব্যাহত সমর্থন দিয়ে যেতে চাই। যারা দেশের বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা চাই। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। মিছবাহুর  রহমান চৌধুরী বলেন, দেশের সেনাবাহিনীকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা চলছে। দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য দেশে-বিদেশে একদল মাফিয়ার সঙ্গে হাত মিলিয়ে কোটি কোটি টাকা খরচ করছে। এসব শত্রুকে চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিতে হবে। তিনি বলেন, একসময়ের কালোবাজারি, অস্ত্র পাচারকারী, লুটেরা যারা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চেয়েছিল তাদের সঙ্গে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন জড়িত। আগামী ৫ জুন আমাদের মহাসমাবেশ থেকে তাদের নাম প্রকাশ করব। আলজাজিরা প্রতিবেদন প্রসঙ্গে মিছবাহুর রহমান চৌধুরী বলেন, শিরোনামে প্রধানমন্ত্রীর কথা বলল। অথচ প্রতিবেদনের কোথাও প্রধানমন্ত্রীর কথা নেই। এটা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত মাদরাসাগুলোয় জাতীয় পতাকা উত্তোলন হয় না। এটা এক ধরনের গোঁয়ার্তুমি। আমরা হতাশ হয়নি। নির্দিষ্ট টার্গেট নিয়ে এগোচ্ছি। সরকারের সফলতা-ব্যর্থতা প্রসঙ্গে বলেন, সরকারের সফলতা অনেক। বিদ্যুতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে শিল্প-ব্যবসা-বাণিজ্য, চিকিৎসা সব ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছে। বড় বড় কাজ করলে সুনামের সঙ্গে কিছু দুর্নামও হবে। ওদিকে তোয়াক্কা করলে লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে না। সারা দেশে কর্মসংস্থান অনেক বেড়েছে। কৃষিতে নজিরবিহিন উন্নতি করেছে। পদ্মা সেতু দৃশ্যমান। সারা দেশে রাস্তাঘাট, ফ্লাইওভার তৈরি হচ্ছে। সব মিলিয়ে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এগিয়ে চলেছেন। সরকারের ব্যর্থতা প্রসঙ্গে বলেন, সামাজিক অবক্ষয়, খুন-খারাবি বেড়েছে। নৈতিকতা ভেঙ্গেঙ পড়েছে। নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের নির্বাচন কমিশন, অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের দলবাজি করার কথা নয়। পক্ষপাতিত্ব করার কথা নয়। মেরুদন্ডহীন কিছু মানুষকে দিয়ে কমিশন গঠন করা হয়েছে। কমিশনগুলোর কারণে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। একদিকে সরকার বলছে আমরা নির্বাচন করছি, অন্যদিকে বিরোধী দল বলছে নির্বাচনের আগের রাতে বাক্স ভরে ফেলা হচ্ছে। যদি বিরোধী দলগুলো রুদ্ধদ্বার ষড়যন্ত্র না করে শক্তিশালীভাবে মাঠে থাকত তাহলে এমন প্রশ্ন উঠত না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর