শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪৫

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু শুধু ষাটোর্ধ্বদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাস সংক্রমণে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০ বছরের কম বয়সী কারও মৃত্যু হয়নি। এই সময়ে মারা যাওয়া পাঁচজনই ছিলেন ষাটোর্ধ্ব। এর আগের দিনও মারা যান পাঁচজন। এর মধ্যে চারজন ছিলেন ষাটোর্ধ্ব ও একজনের বয়স ছিল ৫০ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া পাঁচজনের মধ্যে চারজন ছিলেন পুরুষ ও একজন নারী। সবাই মারা গেছেন হাসপাতালে। মৃতদের মধ্যে তিনজন চট্টগ্রাম ও দুজন ছিলেন ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। গত এক দিনে ১৫ হাজার ৫৬০টি নমুনা পরীক্ষায় আরও ৪১০ জনের দেহে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২ দশমিক ৬৩ শতাংশ। এই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৯৫৭ জন। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫ লাখ ৪৪ হাজার ৯৫৪ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৯৪ হাজার ৭৫৫ জন। মারা গেছেন ৮ হাজার ৩৮৪ জন। গতকাল পর্যন্ত শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ছিল ৯০ দশমিক ৭৯ শতাংশ ও মৃত্যুর হার ছিল ১ দশমিক ৫৪ শতাংশ। এদিকে শুরু থেকেই নারীর চেয়ে তিন গুণ মৃত্যু হচ্ছে পুরুষের। এখন পর্যন্ত মোট মৃতের ৭৫ দশমিক ৬৬ শতাংশই পুরুষ। আর বয়স বিবেচনায় মোট মৃত্যুর ৫৫ দশমিক ৫৯ শতাংশই হয়েছে ষাটোর্ধ্বদের। আধুনিক চিকিৎসা সুবিধা থাকার পরও সর্বাধিক মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। মোট মৃতের ৫৫ দশমিক ৯৬ ভাগই ছিলেন ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। সবচেয়ে কম মৃত্যু হয়েছে ময়মনসিংহ বিভাগে। মোট মৃত্যুর ২ দশমিক ৩৪ শতাংশ হয়েছে এই বিভাগে। অধিকাংশ রোগী বাড়িতে চিকিৎসা নেওয়ায় গতকাল দেশের কভিড-১৯ ডেডিকেটেড হাসপাতালগুলোর ১০ হাজার ৩২৩টি সাধারণ শয্যার মধ্যে ৮ হাজার ৯৫৩টি শয্যাই ফাঁকা ছিল। ৫৮২টি আইসিইউর মধ্যে খালি ছিল ৪২৪টি। কমে গেছে হটলাইনে ফোন করে কভিড-১৯ সেবাগ্রহীতার সংখ্যা। গত বছরের মাঝামাঝি দিনে দেড় লক্ষাধিক মানুষ হটলাইন নম্বরগুলোয় ফোন করে স্বাস্থ্য সেবা নিলেও গত ২৪ ঘণ্টায় ফোনকলের সংখ্যা ছিল ৯ হাজার ৯৩৪টি। গতকাল পর্যন্ত ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন করেছেন ৪০ লাখ ৫৭ হাজার ৯০৫ জন। ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন ২৮ লাখ ৫০ হাজার ৯৪০ জন। বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্তের তথ্য জানানো হয় ও ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদফতর।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর