শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৪৩

অষ্টম কলাম

আবারও নির্বিচার গুলিতে যুক্তরাষ্ট্রে আটজনের মৃত্যু

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র

নির্বিচার গুলিতে আরও আট আমেরিকানের প্রাণ ঝরল। স্থানীয় সময় ১৫ এপ্রিল দিবাগত রাত ১১টার দিকে ইন্ডিয়ানাপলিস এয়ারপোর্টের কাছে ফেডএ্যাক্স ওয়্যার হাউজের এ বন্দুক হামলাকারীও আত্মহত্যা করেছে বলে শুক্রবার ভোর রাতে ইন্ডিয়ানাপলিস মেট্রোপলিটন পুলিশ ডিপার্টমেন্টের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে জানানো হয়। এ নিয়ে গত ৩০ দিনে বন্দুক সহিংসতায় ছয় বাংলাদেশিসহ ৪৩ আমেরিকানের মৃত্যু হলো। আটলান্টায় তিন ম্যাসেজ পার্লারে হামলা চালিয়ে আটজনকে হত্যার ঘটনায় এশিয়ানবিদ্বেষী মনোভাবের আভাস মিললেও অপর হামলার নেপথ্যে কী ছিল তা এখনো উদঘাটনে সক্ষম হয়নি মার্কিন গোয়েন্দারা। বাংলাদেশি-আমেরিকান দুই ভাইয়ের গুলিতে টেক্সাসে মা-বাবা, বোন ও নানি নিহত হওয়ার পর দুই ভাইয়ের আত্মহত্যার নেপথ্য কাহিনি পুলিশ এখনো উদঘাটনে সক্ষম হয়নি। তবে ছোট ভাইয়ের ইনস্টাগ্রামে পোস্টের         সূত্র ধরে মানসিক বিষন্নতায় আক্রান্ত হওয়ার খেসারত হিসেবে এ হত্যা ও আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। সবশেষ ঘটনায় বন্দুকধারী ফেডঅ্যাক্সের ওয়্যারহাউজে ঢুকেই গুলি ছুড়তে থাকে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। পুলিশ অফিসার জিনে কুক শুক্রবার ভোররাতে গণমাধ্যমকে জানান, গুলিবিদ্ধ হয়ে আটজন মারা গেছে। আরও কজন আহত হয়েছেন। বন্দুকধারীও সম্ভবত আত্মহত্যা করেছে। আহতদের আশপাশের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। জিনে কুক উল্লেখ করেন, বন্দুকধারীর পরিচয় সন্ধান করা হচ্ছে। তিনি আরও জানান, ওই ওয়্যারহাউজের ভিতরে প্রবেশের সময়ই টেলিফোন গেটে রাখতে হয়। ফলে কেউই স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে সক্ষম হননি। এমনকি গণমাধ্যমে সংবাদ জেনেও স্বজনরা যোগাযোগ করতে পারেননি। জিনে কুক আরও বলেন, এ সময় নিরাপত্তা বাহিনীর কোনো সদস্য নিহত বা আহত হননি। তিনি বলেন, সংবাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রাত ১১টার দিকে।

শুক্রবার ভোররাত পৌনে ৩টায় হতাহতের তথ্য প্রকাশকালে পুরো এলাকায় থমথমে ভাব বিরাজ করছিল। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বন্দুকধারী মারা যাওয়ায় ভয়ের কোনো কারণ নেই। আশপাশের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ফেডঅ্যাক্সের মুখপাত্র জিম মাসিল্যাক বলেছেন, কোম্পানির পক্ষ থেকে বিস্তারিত সন্ধান করা হচ্ছে। শিগগিরই নিহত ও আহতদের পরিচয় প্রকাশ করা হবে। আটলান্টা ও টেক্সাসে ১৪ জন ছাড়াও কলরাডোর বোল্ডারে একটি গ্রোসারি স্টোরে ১০ জনকে গুলি করে হত্যা করা হয় আটলান্টার ঘটনার ছয় দিনের মাথায়। মার্চের শেষে সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়ায় ৯ বছরের এক শিশুসহ চারজনকে হত্যা করা হয়। সাউথ ক্যারোলিনার রোক হিলে একটি বাসায় গুলি করে পাঁচজনকে হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

এই বিভাগের আরও খবর