শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২৩:০২

৭৬ দিনে সর্বনিম্ন মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৩ হাজার ১৬৭, মৃত্যু ৭০

নিজস্ব প্রতিবেদক

৭৬ দিনে সর্বনিম্ন মৃত্যু
Google News

তিন দিন কমার পর গত দুই দিন ধরে আবারও বাড়ছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ হার। তবে মৃত্যু কমেছে গত ২৪ ঘণ্টায়। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৯ হাজার ৪৩৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩ হাজার ১৬৭ জনের দেহে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১০.৭৬ শতাংশ, যা আগের দিনের চেয়ে দশমিক ৩৬ শতাংশ বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭০ জন, যা আগের দিনের চেয়ে ১৮ জন কম ও ৭৬ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন মৃত্যু। এর চেয়ে কম ৬৭ জনের মৃত্যুর তথ্য দেওয়া হয়েছিল গত ১৯ জুন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী, গতকাল পর্যন্ত দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ১০ হাজার ২৮৩। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৪ লাখ ৪২ হাজার ৫৮২। মারা গেছেন ২৬ হাজার ৪৩২। গত এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৬৯৭।

এদিকে, গত ২৩ থেকে ২৭ আগস্ট টানা পাঁচ দিন শনাক্তের হার কমার পর ২৮ ও ২৯ আগস্ট ফের বাড়ে। ৩০ আগস্ট থেকে ১ সেপ্টেম্বর তিন দিন শনাক্তের হার আবারও কমে গত দুই দিন টানা বেড়েছে। ওঠানামা করছে মৃত্যুর সংখ্যাও। গত ১ সেপ্টেম্বর ৭৯ জন মারা যান, ২ আগস্ট ৮৮ জনের মৃত্যুর খবর দেওয়া হয়। গতকাল আবার মৃত্যু কমে ৭০ জনে দাঁড়ায়। তবে, ২৮ আগস্ট থেকে দৈনিক মৃত্যু ১০০-এর নিচে রয়েছে। এর আগে গত ২৫ জুলাই থেকে ১২ আগস্ট পর্যন্ত টানা ১৯ দিন দৈনিক দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। ১৩ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত দৈনিক মৃত্যু হয় শতাধিক মানুষের। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৭০ জনের মধ্যে ৩৪ জন ছিলেন পুরুষ ও ৩৬ জন নারী। হাসপাতালে ৬৭ জন ও বাড়িতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২৪, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৫, খুলনা বিভাগে ১২, সিলেট বিভাগে আট, রাজশাহী বিভাগে চার, বরিশাল বিভাগে চার ও রংপুর বিভাগে তিনজন মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ বিভাগে করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি। বয়স বিবেচনায় মৃতদের মধ্যে ৩৯ জন ছিলেন ষাটোর্ধ্ব, ১৬ জন পঞ্চাশোর্ধ্ব, ১১ জন চল্লিশোর্ধ্ব, তিনজন ত্রিশোর্ধ্ব ও একজনের বয়স ছিল ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।

নমুনা পরীক্ষায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার বেড়েছে ঢাকা, রংপুর ও খুলনা বিভাগে। গত এক দিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের হার ছিল রংপুর বিভাগে ১৩.৪৮ শতাংশ। এ ছাড়া ঢাকা বিভাগে ১১.৫৩, সিলেট বিভাগে ১১.৪১, খুলনা বিভাগে ১০.২৩, চট্টগ্রাম বিভাগে ১০, বরিশাল বিভাগে ১০, ময়মনসিংহ  বিভাগে ৮.২০ ও রাজশাহী বিভাগে ৭.৯৮ শতাংশ ছিল শনাক্তের হার।