শিরোনাম
শুক্রবার, ৩১ মার্চ, ২০২৩ ০০:০০ টা
অষ্টম কলাম

মা-বাবাকে হত্যায় ছেলের ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

সিলেটে মা-বাবাকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ছেলেকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া পৃথক ধারায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন বিচারক। গতকাল সিলেটের দায়রা জজ আদালতের সিনিয়র বিচারক মশিউর রহমান চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। আদালতের সরকারি কৌঁসুলি নিজাম উদ্দিন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দন্ডপ্রাপ্ত আসামি আতিকুর রহমান রাহেল (৩৬) গোলাপগঞ্জ উপজেলার সুনামগপুর গ্রামের আবদুল করিম খানের ছেলে।

জানা যায়, বাড়ির পার্শ্ববর্তী একখন্ড জমি নিজের নামে লিখে দিতে রাহেল বাবা আবদুল করিম খানকে চাপ দিয়ে আসছিল। ২০২০ সালের ২৭ মার্চ সে আবারও বাবাকে ওই জায়গা লিখে দিতে চাপ সৃষ্টি করে। এ সময় তার মা মিনারা বেগম বাধা দিলে বাগবিতন্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে রাহেল কোদাল দিয়ে তার মাকে মারতে উদ্যত হয়। এ সময় তাকে নিবৃত করতে গেলে সে বাবা আবদুল করিম খানের মাথায় কোদাল দিয়ে কোপ দেয়। এরপর সে মাকে কোদাল দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন ছুটে এলে রাহেল পালিয়ে যায়। রাহেলের কোদালের কোপে আবদুল করিম খান ঘটনাস্থলেই মারা যান। আর আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয় মা মিনারা বেগমকে। কয়েকদিন চিকিৎসা শেষে মিনারা বেগমকে বাড়িতে নেওয়া হলে তিনিও মারা যান। এ ঘটনায় রাহেলের বড় ভাই দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ওই বছরের ২৮ মার্চ রাহেলকে গ্রেফতার করলে সে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। গতকাল বিচারক রাহেলকে মৃত্যুদন্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি নিজাম উদ্দিন আহমদ জানান, আতিকুর রহমান রাহেল দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আদালত তাকে মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছেন। তবে রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন বলে জানান আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন।

 

সর্বশেষ খবর