শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৫:০৪

'নদী ভরাট করে পদ্মার ভাঙন কবলিতদের মাঝে জমি ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে'

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

'নদী ভরাট করে পদ্মার ভাঙন কবলিতদের মাঝে জমি ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে'

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, পদ্মা নদীর ভাঙন রোধে বাঁধের কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। ২০১৮ সালে পদ্মার ভাঙনে ৫ হাজার পরিবার গৃহহীন হয়েছিল। গেল বছর পদ্মা নদীর ভাঙন আমরা ঠেকাতে পেরেছি। বর্ষা মৌসুমের শেষের দিকে ১০টি বাড়ি আকস্মিকভাবে ভাঙনের কবলে পড়েছিল। এ বছর নদী ভরাট করে ওই জমি ভাঙন কবলিতদের মাঝে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ভাঙন রোধে নড়িয়াসহ জেলায় নতুন আরো দুটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। যাতে পদ্মাপারের মানুষ ভাঙনের কবলে পড়ে ভিটে বাড়ি না হারাতে হয়। 

শুক্রবার দুপুরে নড়িয়া-জাজিরা সড়কের নড়িয়া পৌরসভা বাজার অংশের ৩৯০ মিটার সড়ক নির্মাণকাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

সড়কটি নির্মাণে কোটি ৪৯ লাখ টাকা ব্যয় নির্ধারন করা হয়েছে। এর আগে তিনি পদ্মা নদীর ডান তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর এল জি ইডির নির্বাহী প্রকৌশলী শাহজাহান ফরাজি, উপজেলা প্রকৌশলী মো. শাহবউদ্দিন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাচান আলী রাঢ়ী, সাধারণ সম্পাদক হাছানুজ্জামান খোকনসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর