শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ জুলাই, ২০২১ ১৯:২০
আপডেট : ২৬ জুলাই, ২০২১ ১৯:২৩
প্রিন্ট করুন printer

১১ দিনে নিহত ২০৭

ঈদযাত্রায় যে যানবাহনে সড়কে প্রাণ ঝরেছে সবচেয়ে বেশি

সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঢাকা বিভাগে

অনলাইন ডেস্ক

ঈদযাত্রায় যে যানবাহনে সড়কে প্রাণ ঝরেছে সবচেয়ে বেশি
সবচেয়ে বেশি প্রাণ গেছে মোটরসাইকেল চালক ও আরোহীর। প্রতীকী ছবি
Google News

ঈদুল আজহার আগে-পরে ১১ দিনে (১৪-২৪ জুলাই) বাংলাদেশে ১৫৮টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২০৭ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ৩৮৯ জন। সবচেয়ে বেশি প্রাণ গেছে মোটরসাইকেল চালক ও আরোহীর। 

সাতটি জাতীয় দৈনিক, পাঁচটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল এবং ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমের তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে রোড সেফটি ফাউন্ডেশন।

সংগঠনটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই ১১ দিনে ৭৬টি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হন মোট ৮৭ জন, যা মোট নিহতের ৪২ দশমিক ০২ শতাংশ। দুর্ঘটনায় পথচারী নিহত হন ৪৩ জন, যা মোট নিহতের ২০ দশমিক ৭৭ শতাংশ। যানবাহনের চালক ও সহকারী নিহত হন ৩২ জন, অর্থাৎ ১৫ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

এই সময়ে চারটি নৌ-দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত এবং ২৬ জন আহত হন। দুইটি রেল দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হন।

এলাকার ভিত্তিতে ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঘটেছে। এই বিভাগে ৩৩টি দুর্ঘটনায় নিহত হন ৪৮ জন। সবচেয়ে কম দুর্ঘটনা হয় সিলেট বিভাগে। সেখানে চারটি দুর্ঘটনায় নিহত হন চারজন। একক জেলা হিসেবে রংপুরে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি হয়েছে। এখানে পাঁচটি দুর্ঘটনায় ১৫ জন নিহত হন। সুনামগঞ্জে সবচেয়ে কম একটি দুর্ঘটনা ঘটলেও কেউ হতাহত হননি।

তাদের প্রতিবেদন অনুযায়ী দুর্ঘটনায় যানবাহনভিত্তিক নিহতের পরিসংখ্যানে দেখা যায়, মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী ৮৭ জন (৪২ দশমিক ০২ শতাংশ), বাস যাত্রী ১২ জন (৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ), ট্রাক-পিকআপ যাত্রী আটজন (৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ), মাইক্রোবাস-প্রাইভেটকার যাত্রী ১৩ জন (৬ দশমিক ২৮ শতাংশ), থ্রি-হুইলার যাত্রী (সিএনজি-ইজিবাইক-অটোরিকশা-লেগুনা) ৩১ জন (১৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ), নসিমন-মাহিন্দ্র-চান্দেরগাড়ি যাত্রী ১০ জন (৪ দশমিক ৮৩ শতাংশ), বাইসাইকেল আরোহী ৩ জন (১ দশমিক ৪৪ শতাংশ) নিহত হন।

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই বিভাগের আরও খবর