শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০২:২২

এমপিদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক

এমপিদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে বিজয়ীদের শপথ অবৈধ দাবি করে সংসদ সদস্য পদে থাকার বৈধতা প্রশ্নে দায়ের করা রিট আবেদন সরাসরি খারিজ করেছে হাই কোর্ট। গতকাল বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ এবং বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন ও সাকিব মাহবুব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী সংসদ সদস্যদের নেওয়া শপথের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ৮ জানুয়ারি জাতীয় সংসদের স্পিকার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে আইনি নোটিস দেওয়া হয়। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. তাহেরুল ইসলামের পক্ষে নোটিসটি পাঠান ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। নোটিসে বলা হয়, সংবিধানের ১২৩(৩) অনুচ্ছেদে সংসদ ভেঙে দিয়ে পুনরায় সংসদ সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠিত হওয়ার বিধান রয়েছে। কিন্তু সে অনুচ্ছেদ প্রতিপালন না করে আবার সংসদ সদস্যরা শপথ নেওয়ায় বর্তমানে দুটি সংসদ বহাল রয়েছে, যা সংবিধান পরিপন্থী। নোটিসের জবাব না পাওয়ায় ১৫ জানুয়ারি হাই কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট করা হয়।

 বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী এবং বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ ১৭ জানুয়ারি আবেদনটি ‘উত্থাপিত হয়নি’ বলে খারিজ করে দেয়। পরে আবারও রিট আবেদনটি করা হলে ৬ ফেব্রুয়ারি শুনানি নিয়ে আদালত ১৮ ফেব্রুয়ারি আদেশের দিন ধার্য করে। আদেশের পর ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা দায়িত্ব নেবেন বলেই ৩ জানুয়ারি তারা শপথ নিয়েছেন। সংসদের প্রথম অধিবেশন ৩০ জানুয়ারি বসেছে। সংবিধান অনুযায়ী সংসদের প্রথম অধিবেশন বসার দিন থেকে সংসদ সদস্যরা কার্যভার গ্রহণ করে থাকেন। ফলে আগে শপথ নিলেও তাতে সংবিধান বা আইনের ব্যত্যয় ঘটেনি। ফলে রিট আবেদনটি সরাসরি খারিজ করে দিয়েছে আদালত।


আপনার মন্তব্য