শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জুন, ২০১৯ ২৩:১৩

বাইকে বসেই ছুরিকাঘাত করে দুই বন্ধুকে হত্যা করে তরিকুল

দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুরে গত মাসে দুজনের গলাকাটা লাশ উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ বলছে, তরিকুল ইসলাম নামে তাদের এক বন্ধু চলন্ত মোটরবাইকে বসেই এ হত্যাকান্ড ঘটান। পুলিশ সুপার সৈয়দ আবু সায়েম জানান, গত বৃহস্পতিবার তরিকুলকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে এ তথ্য পাওয়া গেছে। তরিকুল জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার পালপাড়া গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। নিহত বিপ্লব চন্দ্র রায় ও হানিফুর রহমান হানিফ ছিলেন তার একই এলাকার বন্ধু।

পুলিশ সুপার বলেন, ‘তিন বন্ধুই মাদক চক্রের সদস্য। আর্থিক লেনদেন নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে তরিকুল দুই বন্ধুকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। তিনজন এক মোটরসাইকেলে চলার সময় মাঝখানে বসেছিলেন তরিকুল। প্রথমে পেছনে বসা বিপ্লবের গলায় ছুরি চালিয়ে দেন তরিকুল। চালক হানিফ কিছু বুঝে ওঠার আগেই তরিকুল তার গলায়ও ছুরি চালিয়ে দেন। এতে তিনজনই মোটরসাইকেল উল্টে পড়ে যান। পরে তরিকুল মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যান। ঘটনাস্থলে পড়ে থাকে দুজনের লাশ।

তরিকুলের স্বীকারোক্তি মোতাবেক মোটরসাইকেল ও ছুরি ঘোড়াঘাট উপজেলা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, গত ৩০ মে ভোরে বীরগঞ্জের  দেবীপুর এলাকা থেকে খোলাভিটা গ্রামের রাজেন্দ্র নাথ রায়ের ছেলে বিপ্লব ও মদনপুর আমতলী গ্রামের আজহার আলীর ছেলে হানিফের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।


আপনার মন্তব্য