শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ আগস্ট, ২০১৯ ০১:৫৯

কলকাতা সিটির পরামর্শ

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছা

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছা

কলকাতায় ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাফল্যের জন্য ওই নগরীর কর্মকর্তারা রাজনৈতিক সদিচ্ছাকে কৃতিত্ব দিয়েছেন। বাংলাদেশেও ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে একই রকম রাজনৈতিক সদিচ্ছার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন তারা। ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গতকাল দুপুরে গুলশানে নগর ভবনে ঢাকা উত্তর সিটি মেয়র আতিকুল ইসলামের সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের এক ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন কলকাতা সিটির ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। অতীন ঘোষ বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে কীটনাশক প্রয়োগের চেয়ে এডিস মশার উৎপত্তিস্থল ধ্বংসের প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। কলকাতায় ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণকে প্রতিরোধ ও প্রতিকার- এই দুটি ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। ২০০৯ সাল থেকে ডেঙ্গু রোগ নিয়ন্ত্রণে কলকাতা তিন স্তর বিশিষ্ট মনিটরিং চালিয়ে যাচ্ছে। সেখানে সারা বছর ডেঙ্গু প্রতিরোধে মনিটরিং এবং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। ঢাকার কোন কোন এলাকা ডেঙ্গুপ্রবণ তা চিহ্নিত করে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দেন অতীন ঘোষ।

এ সময় কলকাতা সিটি করপোরেশনের কীটপতঙ্গ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের প্রধান দেবাশীষ বিশ্বাস জানান, তাদের সিটিতে ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সফলতার অন্যতম কারণ রাজনৈতিক সদিচ্ছা।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে রাজনৈতিক সদিচ্ছার কোনো বিকল্প নেই। যেসব দেশেই ডেঙ্গুর প্রকোপ আছে, সেখানে দেখা যায় রাজনৈতিক সদিচ্ছা নেই। আমাদের এখানে সিটি করপোরেশনের মেয়র, এমনকি রাজ্য সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিসহ সবাই কিন্তু মাঠে নেমেছিলেন। তাই রাজনৈতিক সদিচ্ছা থাকতে হবে।

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের সম্পৃক্ত করার প্রতি  জোর দেন কলকাতা সিটির স্বাস্থ্য বিষয়ক মুখ্য পরামর্শক ডা. তপন মুখার্জি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর