শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪০

ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকল তারাও

‘দুর্জয় বলেন, ‘অসাধারণ আয়োজন! গোলাপি বলে দিনরাতের টেস্ট আয়োজন করে ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন সৌরভ’

ক্রীড়া প্রতিবেদক, কলকাতা থেকে

ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকল তারাও
বাংলাদেশের অভিষেক টেস্ট খেলা ক্রিকেটারদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

ইডেনে গোলাপি বলে দিনরাতের ঐতিহাসিক খেলা দেখতে  ২০০০ সালের ১০ নভেম্বর ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের অভিষেক টেস্ট খেলা স্কোয়াডের সব ক্রিকেটারকেই আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। তার আমন্ত্রণে উপস্থিত থেকেছেন বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়, হাবিবুল বাশার সুমন, খালেদ মাসুদ পাইলট, আকরাম খান, শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎ, মেহরাব হোসেন অপি, হাসিবুল হোসেন শান্ত, ফাহিম মুন্তাসির সুমিত, রাজিন সালেহ, মঞ্জুরুল ইসলাম, মোহাম্মদ রফিক ও এনামুল হক মণি। আসেননি অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে রেকর্ড বইয়ে নাম লেখানো আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও নিউজিল্যান্ডে বসবাসকারী আল শাহরিয়ার রোকন। গোলাপি বলের অভিষেক টেস্টে আমন্ত্রিত অতিথি হয়ে ইডেনে উপস্থিত থেকে নিজেদের ভাগ্যবান ভাবছেন অভিষেক টেস্টের ক্রিকেটাররা। আমন্ত্রণ জানানোয় সাবেকরা বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ‘কলকাতার ‘মহারাজ’ ও সবার প্রিয় ‘দাদা’ গাঙ্গুলীকে। নতুন ইতিহাসের সঙ্গী হতে পেরে আবেগে আপ্লুত দুর্জয়রা।

দুপুরে খেলা শুরুর আগে সাবেক ক্রিকেটাররা বিসিবির লোগোখচিত সবুজ রঙের ব্লেজার পরে মাঠে উপস্থিত হন। বাংলাদেশ ও ভারতের ক্রিকেটারদের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিচিত হন অভিষেক টেস্টের ক্রিকেটারদের সঙ্গে। গোলাপি বলে দুই দলের অভিষেক টেস্টে উপস্থিত থাকতে পেরে ভাষাহীন হয়ে পড়েন ক্রিকেটাররা। সাবেক অধিনায়ক ও অভিষেক টেস্টের উভয় ইনিংসে ৭০ ও ২৯ রানের ইনিংস খেলা হাবিবুল বাশার বলেন, ‘এমন একটি আয়োজনের জন্য সৌরভ গাঙ্গুলীকে শুধু ধন্যবাদ জানিয়েই ক্ষান্ত থাকতে চাই না। আমি আনন্দিত ঐতিহাসিক মুহূর্তেও সাক্ষী হতে পেরে।’ সাবেক অধিনায়ক ও অভিষেক টেস্টের উইকেটরক্ষক পাইলট বলেন, ‘এমন একটি আয়োজন শুধু গাঙ্গুলীর পক্ষেই সম্ভব।’ সুমিত বলেন, ‘দাদা অসাধারণ একজন ব্যক্তিত্ব।’ অভিষেক অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয় বলেন, ‘অসাধারণ আয়োজন! গোলাপি বলে দিনরাতের টেস্ট আয়োজন করে ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন সৌরভ।’ টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের প্রথম বল করা পেসার হাসিবুল বাশার শান্ত বলেন, ‘দাদাকে ধন্যবাদ দিয়ে ছোট করতে চাই না।’ ওপেনার মেহরাব হোসেন অপি বলেন, ‘ইডেনে খেলার স্বপ্ন ছিল। খেলতে পারিনি। কিন্তু বাংলাদেশের গোলাপি বলে টেস্টে উপস্থিত থাকতে পেরে ভালো লাগছে।’


আপনার মন্তব্য