শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জুলাই, ২০১৯ ২২:২৮

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বেকারির খাবার

আফজাল, টঙ্গী

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বেকারির খাবার

গাজীপুরে ভেজাল, নোংরা-অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে বেকারির খাবার। এসব খাবার খেয়ে বিভিন্ন  রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। নগরজুড়ে ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে ওঠা এসব কারখানার বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসন উল্লেখযোগ্য ব্যবস্থা না নেওয়ায় দিনের পর দিন বেড়েই চলছে। এসব কারখানা মালিকের নেই বিএসটিআইর সনদ। নেই ফায়ার সনদ, নেই পরিবেশ ছাড়পত্র কিংবা খাবারের মান নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা।

সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় শত শত বেকারিতে মানহীন কেমিক্যাল দিয়ে ভেজাল, নোংরা-অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে বেকারির খাবার। খাদ্য অধিদফতরের বেঁধে দেওয়া নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে অসাধু ব্যবসায়ীরা বেকারিতে তৈরি করছে হরেক রকমের মুখরোচক খাবার। দীর্ঘদিন ভেজালবিরোধী অভিযান না থাকায় ঘরে ঘরে কারখানা গড়ে উঠেছে নামে-বেনামে। এমনকি এসব কারখানায় ছোট শিশুরাও কাজ করছে। ভেজাল, নোংরা-অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হওয়া বেকারিগুলোর মধ্যে টঙ্গীর শিলমুন খান বেকারি, সেভেন স্টার, মাছিমপুর এলাকায় আজিজ ফুড, আরিফ ফুডস, মাদার ফুড, বৌ-বাজার বি-বাড়িয়া বেকারি, টঙ্গী বাজার রিনা, সালমা, আকলিমা বেকারি, মিরেশপাড়া কুমিল্লা, মুক্তি, শরিফ, চেরাগ আলী হাজী বেকারি, দত্তপাড়া মি. ফুড, বনমালা এলাকায় ফ্রেস ফুড, মিরেরবাজার ও মাঝুখানে তেপান্তর, সততা, এওয়ান, আনন্দ বেকারি, পূবাইল, বড়বাড়ি, মালেকের বাড়ি, জয়দেবপুর, কাশেমপুর, কোনাবাড়িসহ বিভিন্ন এলাকায় শত শত কারখানার একই চিত্র। এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, যত্রতত্র গড়ে ওঠা বেকারি মালিকরা মানহীন খাবার  তৈরি করে বাজারে সরবরাহ করছে। এদের দেখার কেউ নেই। টঙ্গী সেবা হাসপাতালের মালিক শিশু ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. জালাল আহম্মেদ বলেন,  ভেজাল, পচা, বাসি ও নোংরা পরিবেশে তৈরি হওয়া খাবার থেকেই ডায়রিয়া, আমাশয়, গ্যাস্ট্রিক, লিভার সমস্যাসহ বিভিন্ন রোগ ছড়ায় এবং মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে অনেকে। তাই যারা খাবার তৈরি করেন তাদের এসব বিষয়ের ওপর খেয়াল রাখতে হবে। এছাড়া বিএসটিআই কর্তৃপক্ষকেও নজরদারি রাখতে হবে। এ ব্যাপারে গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. মশিউর রহমান বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভেজালবিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আমরা ভেজাল, নোংরা- অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের বেকারির তালিকা তৈরি করে অভিযান চালাব।

 

 


আপনার মন্তব্য