শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:৩২

সৌন্দর্য বাড়াতে নগরজুড়ে কর্মযজ্ঞ

কাজী শাহেদ, রাজশাহী

সৌন্দর্য বাড়াতে নগরজুড়ে কর্মযজ্ঞ

রাজশাহী মহানগরীর সৌন্দর্য বাড়াতে চলছে নানা কর্মযজ্ঞ। চওড়া সড়ক, সড়ক বিভাজক, সড়কদ্বীপে এবং ফুটপাথে লাগানো ফুলের গাছ, সড়কে আলোকায়ন রাজশাহীতে ঘুরতে আসা দেশি-বিদেশি পর্যটকসহ সবার নজর কাড়ছে। শহরের সৌন্দর্য মুগ্ধ করছে সবাইকে। আর এই কার্যক্রম সরাসরি তদারক করছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। 

২০১৮ সাল থেকে সবুজ হয়েছে শহরের প্রায় ২৪ কিলোমিটার রাস্তার সড়ক বিভাজক ও সড়কদ্বীপ। নগরীর প্রধান সড়ক বিভাজক, সড়কদ্বীপে এবং ফুটপাথে লাগানো হয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। ফলে ধূলিকণামুক্ত হওয়ার পাশাপাশি পুরো নগরীর সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পেয়েছে।

সকাল-বিকাল নির্মল বাতাস পেতে পদ্মাতীরে ভিড় যেন চিরচেনা। মানুষের ঘোরাঘুরির স্পট হিসেবে প্রথম পছন্দ এই পদ্মা নদী। সন্ধ্যা গড়িয়ে খানিক রাত অবধি পদ্মা নদীর কূলে মানুষের আনাগোনা। তারুণ্যের ঢেউ পদ্মাপাড়ের অন্তত ১২ কিলোমিটার জুড়ে। জলরাশির পাশে খানিকটা আনন্দের ঢেউ। ভরা পদ্মার নৈসর্গিক রূপে মানুষের টান থাকে সর্বক্ষণ। সারা দিন হইচই, আনন্দে মাতামাতি, ছোট ছোট নৌকায় পাড়ি দেওয়া এসব নিয়ে মুখর থাকে পদ্মা নদীর পাড়। নগরীর বুলনপুর থেকে বড়কুঠি ও পঞ্চবটি হয়ে সাতবাড়িয়া। দীর্ঘ প্রায় ১২ কিলোমিটার এলাকায় পদ্মার পাড় এখন রাজশাহীবাসীর জন্য বিনোদনের সেরা ঠিকানা। পদ্মার তীর ঘেঁষে নির্মাণ করা হয়েছে ওয়াকওয়ে ও আলপনা আঁকা ঝুলন্ত সেতু। কারুকাজ, সবুজের নান্দনিকতা, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার এক শৈল্পিক রূপসহ নানা নাগরিক সুবিধায় অত্যাধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে উঠছে রাজশাহী।

উজ্জ্বল আলোয় উদ্ভাসিত রাতের রাজশাহী। নগরীর প্রশস্ত রাস্তাগুলো এখন আলো ঝলমল। গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে বসানো হয়েছে আধুনিক লাইটপোস্ট। যা একদিকে রাতের শহরের সৌন্দর্য বাড়িয়েছে, অন্যদিকে নগরবাসীকে দিচ্ছে নিরাপত্তা। সুউচ্চ মাস্তুল আকৃতির মজবুত পোলের ওপর রিং বসিয়ে তার চতুরদিকে উচ্চমানের এলইডি লাইট বসানো হয়েছে। এই আলোকায়নকে বলা হচ্ছে ‘হাইমাস্ট’। নগরীর ১৬টি মোড়ে বসানো হয়েছে হাইমাস্ট বাল্ব। এতে ব্যয় হয়েছে প্রায় সাত কোটি টাকা।

এছাড়া আলো ঝলমল হয়েছে রাজশাহীর সিটি বাইপাস সড়ক। উন্নত বিশে^র নামি শহরগুলোর মতো দেশের প্রথম সিটি হিসেবে এমন দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি সংযোজিত হলো। নগরীর বিলসিমলা রেল ক্রসিং থেকে কাশিয়াডাঙ্গা মোড় পর্যন্ত ফোরলেন সড়কের আধুনিক সড়কবাতির উদ্বোধন করেছেন মেয়র। এই সড়ক আলোকায়ন কাজে ব্যয় হয়েছে ৫ কোটি ২২ লাখ টাকা।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘রাজশাহী নগরীর সার্বিক উন্নয়ন করতে কাজ করে যাচ্ছি। একটি উন্নত শহর হিসেবে গড়ে তুলতে এই শহরকে ঢেলে সাজাতে চাই।


আপনার মন্তব্য