৪ ডিসেম্বর, ২০২৩ ১৪:০২

গোপালগঞ্জসহ ৩ জেলায় ৯১১৫ কেজি ধান বীজ বিতরণ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জসহ ৩ জেলায় ৯১১৫ কেজি ধান বীজ বিতরণ

ধান বীজ বিতরণ

গোপালগঞ্জসহ ৩ জেলায় ধানের উৎপাদন বৃদ্ধিতে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট বিনামূল্যে ৯ হাজার ১১৫ কেজি ধান বীজ বিতরণ করেছে। এ বীজ দিয়ে ৩ জেলার ৮০০ কৃষক ৮০০টি প্রদর্শনী প্লটে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি) উদ্ভাবিত উফশী ও হাইব্রিড ধানের চাষাবাদ করবেন।

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রধান ও সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার ড. মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক কার্যালয় গোপালগঞ্জ, বাগেরহাট ও নড়াইল জেলায় ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি এবং ব্রি উদ্ভাবিত উফশী এবং হাইব্রিড ধানের জাত কৃষকদের মাঝে জনপ্রিয় করতে কাজ করছে। সেই ধারাবাহিকতায় চলতি বোরো মৌসুমে আমরা ৩ জেলায় উচ্চ ফলনশীল ব্রি ধান৬৭, ব্রি ধান৮৯, ব্রি ধান৯২, ব্রি ধান৯৬, ব্রি ধান৯৭, ব্রি ধান৯৯, বঙ্গবন্ধু ধান১০০, ব্রি ধান১০১, ব্রি ধান১০২, ব্রি ধান১০৪, ব্রি ধান১০৫ জাতের ধান বীজ ৬ হাজার ৪৬৫ কেজি বিনামূল্যে বিতরণ করেছি। এ ছাড়া ব্রি হাইব্রিড ধান১০৩, ব্রি হাইব্রিড ধান১০৫ ও ব্রি হাইব্রিড ধান১০৮ জাতের ২ হাজার ৬৫০ কেজি বিতরণ করেছি। এসব ধান দিয়ে কৃষক বীজতলা তৈরি করেছে। তারা ৮০০ বিঘা জমিতে এ ধানের প্রদর্শনী প্লট করে ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি করবেন। এতে দেশের খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে।

ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক কার্যালয়ের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা সৃজন চন্দ্র দাস বলেন, গত ৫ বছর ধরে আমরা গোপালগঞ্জ, বাগেরহাট ও নড়াইল জেলায় ব্রি উদ্ভাবিত উফশী এবং হাইব্রিড ধানের জাত কৃষকদের চাষাবাদে উদ্বুদ্ধ করে আসছি। কৃষক আমাদের কাছ থেকে বীজ, পরামর্শ, প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য সহযোগিতা নিয়ে ধান উৎপাদন বৃদ্ধিতে অবদান রাখছে। এতে তারা লাভবান হচ্ছেন। প্রতি বছরই ৩ জেলার কৃষকদের কাছে ব্রি উদ্ভাবিত উফশী এবং হাইব্রিড ধানের জাতের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর