৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ১৭:৪৭

সরিষা চাষ করে ‘চোখে সর্ষে ফুল’ দেখছেন কৃষকরা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

সরিষা চাষ করে ‘চোখে সর্ষে ফুল’ দেখছেন কৃষকরা

গতবছর ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় এ বছর ঠাকুরগাঁওয়ে আগের তুলনায় প্রায় সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর বেশি জমিতে আবাদ হয়েছে সরিষার। কিন্তু এবার সরিষা গাছের বৃদ্ধি ও ফুল ভালো আসলেও অতিরিক্ত ঠাণ্ডা ও ঘন কুয়াশার কারণে ফল কম ধরায় হতাশ কৃষকরা। 

সারেজমিনে দেখা যায়, জেলায় প্রায় প্রতিটি মাঠে সবুজ সরিষা গাছের ডগায় ডগায় হলুদ ফুলের মনোমুগ্ধকর দৃশ্য। ফুলের ঘ্রাণ ও হলুদ রঙের সমারোহ মন কাড়ছে অনেকের। তবে চোখ জুড়ানোর দৃশ্যের মাঝেই হতাশার জাল দেখতে পাচ্ছেন বেশিরভাগ চাষি। 

জেলায় ফেব্রুয়ারি মাসে ঘন কুয়াশা ও ঠাণ্ডার প্রকোপ কিছুটা কমেছে। তবে জানুয়ারি মাসে সরিষা গাছে ফুল আসার সময় অতিরিক্ত ঠাণ্ডা ও কুয়াশা থাকায় গাছে ফল ধরেছে কম। কৃষকরা বলছেন, শীতের জন্য নানা ঔষুধ ব্যবহার করেও মেলেনি প্রতিকার। এবার সরিষার ফলনে আবাদের খরচটুকুও উঠে আসবে কিনা তার কোন নিশ্চয়তা নেই। 

সদর উপজেলার আকচা ইউনিয়নের মুন্সিপাড়া গ্রামের ইসমাইল হোসেন বলেন, ৩ বিঘা জমিতে সরিষার চাষ করেছি। গতবার সরিষার ফলন ও ভালো দাম পাওয়ায় খরচ বাদে ৩ বিঘা জমিতে প্রায় ৭০-৮০ হাজার টাকা লাভ পেয়েছিলাম। এবারও সেই আশায় সরিষা করি। কিন্তু এইবার হামরতি খুব কুয়াশা ও ঠাণ্ডার কারণে গাছত তেমন ফল আসেনি। ৩০ হাজার টাকা খরচ করে মনে হয় ধরা খাইলাম। এবার খরচটাও উঠে আসিবেনি। খালি মুইহে নাহায় হামারতি এইবার যারা যারা সরিষা করছে সবাই ধরা খাইছে। সবার ফসলের একই অবস্থা।

সরিষা চাষি দবিরুল ইসলামও বলেন, গতবারের চেয়ে এবার হামারতি কমবেশি সবাই সরিষা আবাদ করছে কিন্তু কুয়াশায় গাছত ফল ধরেনি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপপরিচালক আলমগীর কবির বলেন, ভোজ্য তেল সয়াবিনের দাম বেশি হওয়ায় কৃষকরা সরিষা আবাদ করে নিজেদের উৎপাদিত তেল তৈরিতে ঝুঁকছেন এবং সরিষার অপজাত খৈল ও গাছ বিভিন্ন কাজে ব্যবহার হয়। তাই জেলায় দিন দিন সরিষার আবাদ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মনে করনে তিনি। এছাড়াও সরিষার চাষ আরও বৃদ্ধি করতে স্বল্প মেয়াদি আমন ধানের জাত চাষে কৃষকদের উদ্ধুদ্ধ করছেন বলে জানান তিনি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তার দেওয়া তথ্য মতে, জেলায় এবার ১৯ হাজার ৭৯০ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে। ২০২২-২৩ অর্থবছরে সরিষার আবাদ হয়েছিল ১৫ হাজর ৯২৩ হেক্টর জমিতে। ওই বছর ফলন ও বাজার মূল্য ভালো পাওয়ায় এবার কৃষকরা বেশি করে চাষ করেন সরিষার। 

 

বিডি প্রতিদিন/নাজমুল

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর