শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:৪৩

ড. শামসুজ্জোহাকে উৎসর্গ করে রাবিতে সপ্তাহব্যাপী গ্রন্থমেলা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

ড. শামসুজ্জোহাকে উৎসর্গ করে রাবিতে সপ্তাহব্যাপী গ্রন্থমেলা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) নবজাগরন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শহীদ বুদ্ধিজীবী ড. শামসুজ্জোহাকে উৎসর্গ করে সপ্তাহব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলা শুরু হয়েছে। মেলা চলবে এ মাসের ২৪ তারিখ পর্যন্ত। 

মঙ্গলবার সকাল নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী প্রশাসন ভবনের সামনে সপ্তাহব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করেন কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক। 

উদ্বােধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে শুধু নির্দিষ্ট পাঠ্যপুস্তক পড়ানো হয়। কিন্তু মনুষ্যত্ব বিকাশে পড়াশুনার পাশাপাশি ছাত্রজীবনে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকা আবশ্যক। একটি রথ যেমন ১০টি ঘোড়া ছাড়া চলতে পারে না, তেমনি ছাত্রজীবনে সবরকম গুনাবলী না থাকলে মনুষ্যত্ব অর্জন হয় না। আমি মনে করি যে মানুষের শিক্ষা মৃত্যুকাল পর্যন্ত, মানুষের শিক্ষার শেষ নাই। বইয়ে যে শব্দগুলোর সমন্বয়ে একটি প্রবন্ধ রচিত হয়, সে শব্দগুলো তৈরি হয় কয়েকটি বর্ণ বা অক্ষর দ্বারা। আর অক্ষরের কখনো মৃত্যু হয় না। মানুষ মারা যায় তবে তার হাতে লিপিবদ্ধ অক্ষরগুলো চিরকাল রয়ে যায়। আমাদের এই মনে করা উচিত, যে মুহূর্তে আমি কথা বলব ভাবছি সে বর্তমানটাই আমার ভবিষ্যৎ হয়ে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু, পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মনিমুল হক, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. ইলিয়াস হোসেন, আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাদিকুল ইসলাম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সুলতান মাহমুদ প্রমুখ।

বইমেলা সম্পর্কে নবজাগরণের সভাপতি খালিদ হাসান বলেন, বই মানুষের জ্ঞানের উৎস আর সেরা বন্ধু, তাই মানুষের জীবনে এর বিকল্প নাই। আর মহান একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালি জাতির অহংকার, এটা গৌরবের মাস আবার শোকেরও। রাবির শহীদ বুদ্ধিজীবী ড. শামসুজ্জোহাও শহীদ হয়েছিলেন এ মাসের ১৮ তারিখ। তাই সকল ভাষা শহীদ ও জোহা স্যারের মহান আত্মত্যাগের প্রতি উৎসর্গ করে আমাদের এই বইমেলার আয়োজন।

তিনি আরও বলেন, আমাদের নবজাগরণ শিক্ষানিকেতনের মূল ব্যয় এর সিংহভাগ আসে এই বই

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর