Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:১৩

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ

নির্দেশনার অপেক্ষায় ওয়ার্ড ও ইউনিট সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

নির্দেশনার অপেক্ষায় ওয়ার্ড ও ইউনিট সম্মেলন
ফাইল ছবি

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশনা পেলেই চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড, ইউনিট কমিটির সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হবে। সম্মেলনের জন্য প্রস্তুত থাকলেও নির্দেশনার পরই আলোচনার মাধ্যমে দিন-তারিখ ঘোষণা করা হবে। ইতিমধ্যে সম্মেলনের জন্য নানাবিধ কার্যক্রম শুরু হলেও আবারও স্থগিত করা হয়েছে কেন্দ্রীয় নির্দেশনায়। 

নগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের আগেই নগরের ওয়ার্ড, ইউনিট সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক আলোচনাও চলছে। রয়েছে উৎসাহ-উদ্দীপনাও। অনেকেই বলছেন সম্মেলন যত দ্রুত হবে, সংগঠনের দায়িত্ব নিয়ে ততই সাংগঠনিক তৎপরতা বৃদ্ধি পাবে। 

সম্মেলনের দিন-তারিখ ঠিক না হলেও চট্টগ্রাম মহানগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের প্রতিটিতেই নেতা-কর্মীরা চোখে পড়ার মতো নানাবিধ কর্মসূচী পালন করে আসছেন রীতিমতো। এতে কোন এলাকায় কারা রাজনৈতিক দক্ষতা, যোগ্যতার মধ্যে কাজ করছেন সেই বিষয়ে নগর নেতারা ছাড়া কেন্দ্রীয় নেতাদেরও নজর পড়ছে কর্মীদের উপর। এর আগে চলতি মাসে মহানগর আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড ও ইউনিট সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত মাসে কেন্দ্র থেকে নগর আওয়ামী লীগ নেতাদেরকে সম্মেলন কর্মসূচী স্থগিত রাখতে নির্দেশনা দেয়া হয়।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে হলে তৃণমূলে সম্মেলন করা দরকার বলে মনে করছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি মেয়র ক্রীড়া সংগঠক আ জ ম নাছির উদ্দীন। নগর আওয়ামী লীগের সভায় আজম নাছির উদ্দিন আরও বলেছেন, মহানগর আওয়ামী লীগ শক্তিশালী ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে আছে। এর এই ভিত্তিকে আরও মজবুত করতে হলে তৃণমূলে সংগঠনকে ঢেলে সাজাতে হবে। তৃণমূলে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হলে পরীক্ষিত নেতাকর্মীর প্রয়োজন। তাদের মাধ্যমেই সংগঠনে গতিশীলতা আসবে। আর পরীক্ষিত নেতাকর্মীরা সম্মেলনের মাধ্যমেই উঠে আসবে।

মহাগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দলের পদ পদবী নিয়ে যারা বিভিন্ন প্রকার ফায়দা লুটছেন এবং নিজের এলাকায় যাদের কোন সাংগঠনিক ভিত্তি নাই তারা দলের পদে থাকা সমচিন নয়। তিনি এলাকায় নতুনভাবে গড়ে উঠা  নেতৃত্বকে সামনে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১৩ নভেম্বর এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে সভাপতি এবং আ জ ম নাছির উদ্দীনকে সাধারণ সম্পাদক করে চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের ৭১ সদস্যের কমিটি গঠন হয়। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটির মেয়াদ তিন বছর। ২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে সম্মেলন করার পরিকল্পনা ছিল এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর। এরপর তিনি (মহিউদ্দিন চৌধুরী) মৃত্যুতে পরিস্থিতি পাল্টে যায়। পরে নগর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্বপান সহ-সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী।

 

বিডি প্রতিদিন/ তাফসীর আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য