শিরোনাম
২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৯:১২

গভীর রাতে বাসের ভেতর সন্তান প্রসব

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

গভীর রাতে বাসের ভেতর সন্তান প্রসব

সংগৃহীত ছবি

নারায়ণগঞ্জ থেকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে চট্টগ্রামের পটিয়ায় বাসের ভেতর নবজাতকের জন্ম দিয়েছেন এক নারী।

সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ওই নারী নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় স্বামীর সঙ্গে থাকতেন। তার স্বামী পেশায় রিকশাচালক। স্বামীর বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়। সোমবার নারায়ণগঞ্জ থেকে কক্সবাজারের চকরিয়ায় বাবার বাড়ি যাচ্ছিলেন তিনি।

জানা গেছে, ঢাকা থেকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে অন্তঃসত্ত্বা ওই নারীর প্রসব বেদনা শুরু হয়। এ সময় চালক বাসটি পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতরে নিয়ে যান। এ সময় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এসে বাসের যাত্রীরা জানায় বাসে একজন প্রসূতি আছেন। হাসপাতালের চিকিৎসকদের বাসে গিয়ে তাকে দেখার জন্য অনুরোধ করেন। 

পরে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসক রাজীব দে মিডওয়াইফ বিবি হালিমা ও শরিফা জেসমিনকে সাথে নিয়ে বাসের ভেতর ওই নারীকে দেখতে যান। এ সময় তারা দেখেন ওই নারীর ডেলিভারি হবার পথে। তাই তারা বাসেই প্রসূতির নিরাপদ ডেলিভারির ব্যবস্থা করেন। রাত সোয়া তিনটার দিকে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে প্রসূতি মা পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। পরে বাচ্চা এবং মাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে প্রসব পরবর্তী চিকিৎসা দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক রাজীব দে বলেন, রাতে একটি গাড়িতে এক নারীর লেবার পেইন উঠলে কয়েকজন হাসপাতালের জরুরি বিভাগে খবর দেয়। হাসপাতালের দায়িত্বরত মিডওয়াইফরা গাড়িতে উঠে দেখে রোগীর অবস্থা তেমন ভালো নয়। এ অবস্থায় হাসপাতালে আনাও সম্ভব না। তাই গাড়িতেই বাচ্চা প্রসবের ব্যবস্থা করা হয়। পরে মা ও নবজাতককে পরবর্তী চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে মা ও শিশু সুস্থ আছেন।  

পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. সব্যসাচী নাথ বলেন, হাসপাতালের চিকিৎসক ও মিডওয়াইফদের সহযোগিতায় গাড়িতে নারীর প্রসব সম্পন্ন হয়। এই মা ও শিশুকে বাঁচানোর পেছনে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, গাড়িতে থাকা চালক ও যাত্রী সবার সহযোগিতা ছিল।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর